• মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৭ মুহররম ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
জাতির পিতার মৃত্যু নেই শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে পীরগঞ্জে তাণ্ডবের মামলায় ৫১ আসামির আত্মসমর্পণ বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি ফজিলাতুন নেছা মুজিব দৃঢ়চেতা-বলিষ্ঠ চরিত্রের অধিকারী ছিলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ বাংলাদেশে সহায়তা অব্যাহত রাখবে চীন: ওয়াং ই চীনে ৯৯ শতাংশ পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে বাংলাদেশ মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি শেখ কামাল ছিলেন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী: প্রধানমন্ত্রী শেখ কামাল ছিলেন ক্রীড়া ও সংস্কৃতিমনা সুকুমার মনোবৃত্তির মানুষ

পদ্মাসেতু উদ্বোধনে শোকসন্তপ্ত বিএনপি!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২২  

নানা জল্পনা-কল্পনা ও গুজবকে উড়িয়ে দিয়ে দেশের নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত পদ্মাসেতু গতকাল শনিবার উদ্বোধন করা হয়েছে। বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সারাদেশ উৎসবে মেতে উদ্বোধন পালিত হল এ সেতুর।

তবে দেশের এ আনন্দঘন মুহূর্তে মন ভালো নেই বিএনপি নেতাকর্মীদের। তারা এ সেতুর উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে যেন শোকে মূর্ছা গেছেন। দলের নেতাকর্মীদের আচরণে এমনটাই মনে হচ্ছে বলে মত দিয়েছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির হাইকমান্ডের নির্দেশে ২৫ জুন পদ্মাসেতুর উদ্বোধনের দিনটিকে শোক পালনের জন্য নির্ধারণ করে বিএনপি। তবে এই শোক পালনে ঘি ঢেলে দেন দলের তৃণমূলের কিছু নেতাকর্মী। হাইকমান্ডের নির্দেশনা অমান্য করে তারা পদ্মাসেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান দেখতে যান এবং সেখান থেকে ফেসবুকে কিছু ছবিও আপলোড করেন। 

এদের মধ্যে তিনজন ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন- ‘স্বপ্নের পদ্মাসেতু’। আর বিষয়টি নজরে আসতেই তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

জানা যায়, বিষয়টি জানার পর ফখরুলসহ সিনিয়র কোনো নেতাই বাসা থেকে বের হচ্ছেন না। পদ্মাসেতু উদ্বোধনের দিনই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার নাটক সাজান মির্জা ফখরুল। মিডিয়ার সামনে না আসার অজুহাতের জন্যেই তিনি এ নাটক মঞ্চস্ত করেছেন বলে আরেকটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। 

দেশের বিজ্ঞজনরা বলছেন, পদ্মাসেতু উদ্বোধন হওয়ায় সমগ্র বাংলাদেশের মানুষ আনন্দে উদ্বেলিত ও উচ্ছ্বসিত। রয়েছে যানবাহন চালকদের মধ্যেও উচ্ছ্বাস, কারণ তাদের দীর্ঘ দিনের কষ্ট লাঘব হয়েছে। পদ্মা পাড়ি দেওয়ার জন্য তাদের আর ঘণ্টার পর ঘণ্টা, দিনের পর দিন অপেক্ষা করতে হবে না।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, সারাদেশের মানুষের এই আনন্দ-উচ্ছ্বাসেও বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের মনে আনন্দ নেই। তাদের আজ মন খারাপ। এতদিন মির্জা ফখরুলসহ বিএনপি নেতারা আবোল-তাবোল বকেছেন। এখন তাদের জবানই বন্ধ হয়ে গেছে। তারা যেন শোকে মূর্ছা গেছেন!

পদ্মাসেতু উদ্বোধনের দিন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা বলেছেন, পদ্মাসেতু নির্মাণ ষড়যন্ত্রকারীদের জন্য সমুচিত জবাব। আর বিএনপি ও জামায়াতের নেতাকর্মীরাও হয়তো এতদিনে বুঝতে পেরেছেন, হাজার ষড়যন্ত্র করেও দেশের উন্নয়নকে দমিয়ে রাখা সম্ভব নয়।