• রোববার   ২৬ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
পদ্মা সেতুর সফলতায় প্রধানমন্ত্রীকে কুয়েতের রাষ্ট্রদূতের অভিনন্দন নতুন প্রজন্মকে প্রস্তত হতে বললেন প্রধানমন্ত্রী আমরা বিজয়ী জাতি, মাথা উঁচু করে চলবো: প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পরিবারের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ: রাষ্ট্রপতি মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণাঞ্চলের উন্নতির জন্য নিজের জীবন দেয়ার ওয়াদা- প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর ওপর হাজারো মানুষের ঢল ‘আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই’ শিবচরের সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী অবশেষে এলো সেই মাহেন্দ্রক্ষণ: পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন কংক্রিটের অবকাঠামো নয়, পদ্মা সেতু আমাদের অহংকার: প্রধানমন্ত্রী এ সেতু স্পর্ধিত বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি: প্রধানমন্ত্রী ৪২টি পিলার বাংলাদেশের আত্মমর্যাদার ভিত: প্রধানমন্ত্রী ‘সর্বনাশা’ থেকে ‘সর্বআশা’ পদ্মা পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু পদ্মার বুক চিরে বাংলাদেশের ‘সাহস’ পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেশের জন্য গৌরবোজ্জ্বল ও ঐতিহাসিক দিন সুধী সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুর মতো সব প্রকল্পের সফল বাস্তবায়ন কামনা করছি: রাষ্ট্রপতি দখিনা দুয়ার খুলছে আজ

কুয়াকাটায় প্রথমবারের মতো ধরা পড়ল সবুজ কচ্ছপ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২২  

সাগরকন্যা খ্যাত পর্যটনকেন্দ্র পটুয়াখালীর কুয়াকাটার গঙ্গামতি সৈকতের সানরাইজ পয়েন্টে ভেসে এসেছে জেলেদের জালে প্যাঁচানো অবস্থায় বিরল গ্রিন সি টার্টেল প্রজাতির (সামুদ্রিক সবুজ কচ্ছপ)। ৪০ কেজি ওজনের কচ্ছপটিকে জীবিত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

শনিবার সকাল ৮টার দিকে জোয়ার শেষে সৈকতে কচ্ছপটি বালুচরে আটকে পড়ে। খবর পেয়ে ব্লু-গার্ড সদস্যরা জালে পেঁচানো অবস্থায় কচ্ছপটি জীবিত উদ্ধার করে।

ব্লু-গার্ড সদস্য পান্না মিয়া ও পনু হাওলাদার বলেন, মোটা সবুজ ও বড় ফাঁসের জালে এটি প্যাঁচানো ছিল। এসব জাল সাধারণত গভীর সমুদ্রে ফিশিং ট্রলিতে ব্যবহার করা হয়। অনেক সময় ধরে জালে প্যাঁচানো থাকায় কচ্ছপটির পেটের নিচের অংশ, পাখা ও পায়ে কিছুটা ক্ষত হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কচ্ছপটি সাগরে অবমুক্ত করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ল্ড ফিস-এর ইকোফিস-২ প্রকল্পের সহযোগী গবেষক সাগরিকা স্মৃতি বলেন, কলাপাড়ায় এবারই প্রথম জীবিত গ্রিন সি টার্টেল ধরা পড়েছে। দুইদিন আগে রাবনাবাদ চ্যানেলে আরো একটি ৩৫ কেজি ওজনের ঐ প্রজাতির মৃত কচ্ছপ ভেসে এসেছিল।

গবেষকরা আরো জানিয়েছেন, এ প্রজাতির কচ্ছপ ১০০ বছর পর্যন্ত বাঁচে। ২৫ বছর বয়স হতে প্রতি ২-৪ বছর পর পর এ কচ্ছপ ডিম পাড়ে। এরা অন্য কচ্ছপের চেয়ে বেশি সময় ধরে পানির নিচে থাকে। এদের খোলস সবুজ বর্ণের অশ্রু বিন্দুর মতো দাগ থাকে এবং পাঁচ ফুট পর্যন্ত দৈর্ঘ্য এবং ৩০০ কেজি পর্যন্ত ওজনের হয়। গভীর সমুদ্রে অবাধে ফিশিং ট্রলার মাছ শিকার করায় ঐ জালে এ কচ্ছপ ধরা পড়ছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে এটি রক্ষায় সর্বস্তরের মানুষের সচেতন হওয়া খুবই জরুরি।