• সোমবার ২৪ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১০ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ

আইপিএলের ইতিহাসে খরুচে বোলিংয়ের রেকর্ড মুহিতের

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৫ এপ্রিল ২০২৪  

আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে খরুচে বোলিংয়ের লজ্জার রেকর্ড করেছেন গুজরাট টাইটানসের পেসার মুহিত শর্মা। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ৪ ওভার বোলিং করে কোনো উইকেট ছাড়াই ৭৩ রান খরচা করেছেন তিনি।

মুুহিতের রেকর্ড খরুচে বোলিংয়ের ম্যাচে ৪ উইকেটে ২২৪ করে দিল্লি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শ্বাসরুদ্ধকর শেষ ওভারে ৪ রানে হারে গুজরাট। শুবমান গিলের দল গুজরাট তুলতে পারে ৮ উইকেটে ২২০ রান।

এই ম্যাচে প্রথম নিজের ৩ ওভারে ৪২ রান খরচা করেন মুহিত। এরপর ইনিংসের শেষ ওভার করার জন্য সেই মুহিতের হাতেই বল তুলে দেন গুজরাটের অধিনায়ক শুবমান গিল। ওই ওভারে এই পেসার খরচা করেন আরও ৩১ রান। ৪ ছক্কা আর ১ বাউন্ডারিতে তাকে তুলোধুনো করেন দিল্লি অধিনায়ক রিশাভ পান্ত।

শেষ ওভারে মুহিতের বোলিং ফিগারটা ছিল এরকম- ডাবল, ওয়াইড (১ রান), ছক্কা, চার, ছক্কা, ছক্কা, ছক্কা।

আইপিএলের ইতিহাসের দ্বিতীয় কোনো বোলার হিসেবে এক ইনিংসে ৭০ বা তার বেশি রান খরচের রেকর্ড করেন মুহিত। তার আগে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে বোলিং করতে নেমে ৭০ রান খরচা করেছিলেন হায়দরাবাদের পেসার বসিল থাম্পি।

রান খরচের তালিকায় তৃতীয়স্থানে আছেন যশ দয়াল। আহমেদাবাদে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ৪ ওভার বল করে ৬৯ রান খরচা করেছিলেন গুজরাটের এই বোলার। আর ৬৮ রান খরচায় চতুর্থস্থানে আছেন রিসি টপলি।