• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল হস্তান্তর ব্যাংক খাতের পরিস্থিতি জানানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশ, পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়া-খালেদা-তারেক খুনি: প্রধানমন্ত্রী জেলা-উপজেলা পর্যায়ে কর্মজীবী মহিলা হোস্টেল হবে: প্রধানমন্ত্রী দুপুরে সচিবদের নিয়ে বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে ডা. মিলনের আত্মত্যাগ নতুন গতি সঞ্চার করে ডা. মিলন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: রাষ্ট্রপতি মিছিল-মিটিংয়ে আপত্তি নেই, মানুষের ওপর হামলায় সহ্য করবো না ‘যারা গ্রেনেড দিয়ে আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে, তাদের সঙ্গে আলোচনা? যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ে বরিশালে ৩ হাজার ঘর বিধস্ত,ক্ষতি প্রায় সাড়ে ৮ কোটি টাকার

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০২২  

বরিশাল প্রতিনিধি : ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে বরিশাল জেলার ১০ উপজেলায় ৩ হাজার ১৪১টি ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। একইসঙ্গে ঘের ও পুকুরের মাছ ভেসে এক হাজার ৪১৬ চাষির ৮ কোটি ১৯ লাখ ৬০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) বিকালে এ তথ্য জানিয়েছেন বরিশালের জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার। তিনি বলেন, সবচেয়ে বেশি বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে হিজলা উপজেলায়। সেখানকার দুই হাজার ২০০টি বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এছাড়া আগৈলঝাড়ায় ৩৫, গৌরনদীতে ১১৫, উজিরপুরে ১৫০, বানারীপাড়ায় ১০০, বাবুগঞ্জে ১০৫, মুলাদীতে ৬০, মেহেন্দিগঞ্জে ১৩২, বরিশাল সদর ও মহানগরে ৬০ এবং বাকেরগঞ্জে ১৮১টি বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, বরিশাল জেলায় প্রায় ৯০ হাজার ৬২১ জন দুর্গত মানুষকে শুকনো খাবার দেওয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে।

মৎস্য অধিদফতরের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক নাসির উদ্দিন বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে বরিশাল জেলায় এক হাজার ৮৪৩টি দিঘি, পুকুর ও ঘের ডুবে গেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন এক হাজার ৪১৬ জন খামারি। ভেসে গেছে ৫৮৫ মেট্রিক টন মাছ। এর মধ্যে পোনা ২৪ লাখ। ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ছয় কোটি ৬৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা। পোনা ভেসে গেছে ৫৪ লাখ টাকার। অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে ৯৯ লাখ টাকার। মোট ক্ষতি হয়েছে ০৮ কোটি ১৯ লাখ ৬০ হাজার টাকা।