• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

লবণাক্ত পানিতে গাড়ি ধুলে যেসব সমস্যা হতে পারে

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২৩  

গাড়ি পরিষ্কারের সময় অনেকেই লবণাক্ত পানি ব্যবহার করেন। অনেক এলাকায় পানি প্রাকৃতিকভাবেই লবণাক্ত হয়। এই পানি দিয়ে নিয়মিত গাড়ি পরিষ্কার করলে গাড়ির নানান সমস্যা দেখা দিতে পারে। ফলে গাড়ির রিসেল ভ্যালু কমে যেতে পারে। গাড়ি ধোয়ার এই অভ্যাস অনেক টাকার ক্ষতি ডেকে আনতে পারে আপনার জন্য।

জেনে নিন গাড়ির কী কী সমস্যা হতে পারে-

ক্ষতি হয় গাড়ির পেইন্ট
পানিতে থাকা লবণ গাড়ির রং খারাপ করে দিতে পারে। যে পেইন্টের কোটিং থাকে তাতে ফাটল ধরতে পারে। নিয়মিত নোনা পানি দিয়ে গাড়ি ধোয়ার ফলে পেইন্ট তার চকচকে ভাব হারাতে পারে। আর গাড়ির পেইন্ট যদি নষ্ট হয় তাহলে তার সৌন্দর্য ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

জং ধরবে তাড়াতাড়ি
গাড়ি যদি নিয়মিত লবণ পানি দিয়ে ধোয়া হয়, তাহলে খুব তাড়াতাড়ি জং ধরতে পারে। নষ্ট হতে পারে গাড়ির বডি। লবণ পানি ফলে গাড়ির মান দুর্বল হয়ে যায়। যে কারণে পরবর্তীকালে এটি বিক্রি করতে গেলে সমস্যায় ভুগতে পারেন।

ইলেকট্রনিক্স ও রাবার
গাড়িতে অনেক বৈদ্যুতিক ও রাবারজাতীয় পণ্য থাকে। লবণ পানির সংস্পর্শে আসার পর গাড়ির বৈদ্যুতিক পার্টসগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এমনকি শর্ট সাৰ্কিটের সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। পাশাপাশি গাড়িতে যে রাবারের অংশগুলো থাকে তাতেও ধীরে ধীরে ফাটল ধরতে শুরু করে।

কীভাবে সাবধান হবেন?
গাড়ির বডির জন্য ক্ষতিকারক লবণ পানি। দীর্ঘমেয়াদে যারা গাড়িটি ব্যবহার করতে চান তাদের দ্রুত এই অভ্যাস বন্ধ করা উচিত। এক্ষেত্রে গাড়ি ধোয়ার সময় পরিষ্কার পানি ব্যবহার করুন। ধোয়া হয়ে গেলে সেটি শুকনো কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন। এবং গাড়ি শুকোনোর জন্য পর্যাপ্ত সময় দিন।