• শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

  • || ১৯ শা'বান ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ‘কোনো একটি জিনিস না খেলে রোজা হবে না, এ মানসিকতা পাল্টাতে হবে’ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে

মৎস্য মন্ত্রনালয়ের সচিব ও ইলিশ প্রকল্পের পিডির আড়িয়াল খাঁ নদীতে অভিযান

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৩ অক্টোবর ২০২২  

বরিশালের বাবুগঞ্জে আড়িয়াল খাঁ নদীতে মৎস্য মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল কাইউম ও ইলিশ প্রকল্পের পরিচালক জিয়া হায়দার অভিযান চালিয়ে ১৫হাজার মিটার জাল জব্দ করেছে। এসময় কোন জেলেকে পাওয়া যায়নি।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার আড়িয়াল খাঁ নদীতে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জেলেরা ইলিশ মাস শিকার করছেন। একারনে উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে ২২অক্টোবর দুপুর থেকে সন্ধ্যায় পর্যন্ত মৎস্য মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল কাইউম ও ইলিশ প্রকল্পের পরিচালক জিয়া হায়দার আড়িয়াল খাঁ নদীতে অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযান চালিয়ে তারা পরিত্যক্ত অবস্থায় ১৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করেছেন। এবং জব্দকৃত জাল নদীর পাড়ে বসে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতে উপস্থিত ছিলেন, বরিশাল বিভাগীয় মৎস্য কর্মকর্তা আনিচুর রহমান তালুকদার, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সীমা রানী শীলসহ পুলিশ কর্মকর্তারা।

এসময় মৎস্য মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল কাইউম বলেন, জেলেরা আগের চেয়ে অনেক বেশী সচেতন হয়েছেন। কারন তারা বুঝতে পেরেছেন এই সময় মাছ না ধরলে পরবতীতে বেশী মাছ পাওয়া যাবে। তার জন্য জেলেরা নদীতে কম নামছেন। সরকার থেকে তাদের এই সময়ে চাল দিয়ে সহযোগীতা করা হচ্ছে।