• মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪৩১

  • || ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমাল : ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়: প্রধানমন্ত্রী সকালেই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে রেমাল, আছড়ে পড়বে মধ্যরাতে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : পায়রা ও মোংলা বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান

রমজানের শেষ দশকে মক্কা-মদিনায় ১০ লাখেরও বেশি মুসল্লি

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৪ এপ্রিল ২০২৪  

শবে কদরের তালাশে রমজানের শেষ ১০ দিনে মক্কায় কাবা শরিফ ও মদিনায় মসজিদে নববীতে মুসল্লিদের ঢল নেমেছে। দুই পবিত্র স্থান মিলিয়ে মুসল্লির সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গাল্ফ নিউজ।

নাজাত লাভের আশায় রমজানের ২০ তম দিনে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশ এবং সৌদি আরবের বিভিন্ন এলাকা থেকে মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববীতে এসে জড়ো হয়েছেন বিপুল সংখ্যক মুসল্লি।

মুসল্লিরা ওমরাহ, তারাবি এবং কিয়ামুল্লাইল নামাজে নিযুক্ত রয়েছেন। ইতিকাফে বসেছেন হাজার হাজার মুসল্লি।

গ্র্যান্ড মসজিদ ও মসজিদে নববীতে পবিত্র ওমরাহ পালনসহ ইবাদতে মশগুল থাকা মুসল্লিদের জন্য নিরাপদ ব্যবস্থাপনা ও স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিত করতে দ্য জেনারেল অথরিটি ফর দ্য কেয়ার অব দ্য গ্রান্ড মস্ক অ্যান্ড দ্য প্রফেট’স মস্কের মাধ্যমে বিস্তৃত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে সৌদি সরকার।

শনিবার থেকে শুরু হওয়া এই পরিকল্পনায় রয়েছে বিস্তৃত পরিষেবার বিধান, ইবাদত ও সংশ্লিষ্ট অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নে পালনের সুবিধার্থে মানব ও প্রযুক্তির উভয়ের সংস্থান স্থাপন।

গালফ নিউজ আরও জানিয়েছে, ২০০ সৌদি কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে ৪ হাজারেরও বেশি কর্মী এই দুই মসজিদে পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন।

তারা ৩ হাজার ৫১৬টিরও বেশি শৌচাগার, ৯ হাজার ১৫৫টি জমজমের পানির পাত্র পরিচালনার পাশাপাশি নামাজের হল ও আঙিনার জন্য ৩৫ হাজারেরও বেশি নতুন কার্পেট প্রস্তুতের কাজ করছেন।

এছাড়াও ওমরাহযাত্রী ও মুসল্লিদের ব্যবহারের জন্য ৩ হাজার হাতের গাড়ি, ২ হাজার বৈদ্যুতিক যান এবং ৬ হাজার যানবাহন পুশারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।