• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ এআইকে স্বাগত জানায় তবে অপব্যবহার রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে ছেলেরা কেন কিশোর গ্যাংয়ে জড়াচ্ছে কারণ খুঁজে বের করার নির্দেশ প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন নতুন প্রজন্ম গড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার যত ছাত্রীদের চেয়ে ছাত্ররা পিছিয়ে, কারণ খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসির ফল হস্তান্তর জলাধার ঠিক রেখে স্থাপনা নির্মাণে প্রকৌশলীদের আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

চুল ও মুখের যেসব সমস্যা যৌনবাহিত রোগ সিফিলিসের ইঙ্গিত দেয়

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২২  

সিফিলিস একটি সুপরিচিত যৌন সংক্রামিত সংক্রমণ বা (এসটিআই)। সাধারণত সংক্রামিত ব্যক্তির সঙ্গে অরক্ষিত যৌন মিলনের মাধ্যমে অন্যের শরীরে ছড়িয়ে পড়ে এই রোগ।

যদি সময়মতো এর সঠিক চিকিৎসা করা না হয় তাহলে সিফিলিস জীবন হুমকির কারণ যেমন- হার্ট ফেইলিওর, খিঁচুনিসহ বিভিন্ন গুরুতর সমস্যার ঝুঁকি বাড়াতে পারে। সিফিলিসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চিকিৎসকরা কনডম ব্যবহারের পরামর্শ দেন।

সিফিলিসের প্রাথমিক লক্ষণগুলো প্রায়শই হালকা হয়। আর এ কারণে অনেকেই প্রথম দিকে এই রোগ শনাক্তে দেরি করে ফেলেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিলে তখনই চিকিৎসকের দারস্থ হয়ে অনেকেই তখন জানতে পারেন যে তিনি সিফিলিসে ভুগছেন।

তবে আপনার যদি জানা থাকে সিফিলিসের লক্ষণ কোনগুলো তাহলে হয়তো প্রথমদিকেই এই রোগ শনাক্ত করে চিকিৎসা গ্রহণ করতে পারবেন। জেনে নিন গুরুতর যৌনবাহিত রোগ সিফিলিসের লক্ষণ-

মুখে সাদা দাগ

যদি আপনার মুখে সাদা দাগ দেখা দেয়, তাহলে এর অর্থ হতে পারে আপনি সিফিলিসে আক্রান্ত। গবেষণায় দেখা গেছে, প্রায় ৪-১২ শতাংশ রোগীর মুখে সিফিলিসের কারণে সাদা দাগ পড়েছে।

মুখ ছাড়াও সিফিলিসের কারণে শরীরের বিভিন্ন স্থান যেমন- বগল, কুঁচকি এমনকি যৌনাঙ্গের আশপাশে সাদা ক্ষত দেখা দিতে পারে। আদ্র অঞ্চলে এমন সাদা ঘা দেখা দেয় বেশি।

চুল পড়া

সেকেন্ডারি সিফিলিসের কারণে মাথা, দাড়ি ও ভ্রুর চুল পড়ে যেতে পারে। গবেষণা অনুসারে, চুল পড়ার ফ্রিকোয়েন্সি ২.৯-৭ শতাংশ পর্যন্ত। এই চুল পড়ার প্যাটার্ন মথ-খাওয়া, ছড়িয়ে পড়া বা উভয়ই হতে পারে।
সেকেন্ডারি সিফিলিসের কারণে চুল পড়ার সবচেয়ে সাধারণ ধরন হলো গোলাকার প্যাটার্ন। মুখ ও চুল ছাড়াও, অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ উপসর্গও দেখা দেয় এই রোগে। যেমন-

ছোট ঘা

সিফিলিসের প্রথম লক্ষণ সাধারণত ছোট ঘা যাকে চ্যাঙ্কার বলে। যেখানে ব্যাকটেরিয়া আপনার শরীরে প্রবেশ করেছে সেই স্থানেই প্রথম ঘা দেখা দেয়।

ব্যাকটেরিয়া থেকে সংস্পর্শে আসার প্রায় তিন সপ্তাহ পরে চ্যাঙ্কার সাধারণত বিকাশ লাভ করে। সিফিলিসে আক্রান্ত রোগীদের অনেকেই এ ধরনের ঘা টের পান না, কারণ ব্যথাহীন হয় সেগুলো।

আবার যোনি বা মলদ্বারের মধ্যেও লুকিয়ে থাকতে পারে এ ধরনের ছোট ঘা। সংক্রমণের তিন থেকে ছয় সপ্তাহের মধ্যে চ্যাঙ্কার নিজেই সেরে যায়।

ফুসকুড়ি

ছোট ছোট ঘা সেরে যাওয়ার কয়েক সপ্তাহ পর ফুসকুড়ি দেখা দিতে পারে। একক ফুসকুড়ি দিয়ে শুরু হয়, তবে শেষ পর্যন্ত তা পুরো শরীরে ছড়িয়ে পড়ে।

এমনকি হাতের তালু ও আপনার পায়ের তলায়ও বের হয় ফুসকুড়ি। এই ফুসকুড়ি সাধারণত চুলকায় না। এটি রুক্ষ, লাল বা লালচে-বাদামি দাগের মতো দেখা যায়।

ফ্লুর মতো লক্ষণ

সিফিলিসের দ্বিতীয় পর্যায়ে আক্রান্তরা বেশ অসুস্থ বোধ করেন। হালকা ফ্লুর মতো উপসর্গ থাকতে পারে। যেমন- জ্বর, ক্লান্তি বা ক্লান্তি, গলা ব্যথা, ফুলে যাওয়া গ্রন্থি, মাথাব্যথা, পেশিতে ব্যথা ইত্যাদি। যদি সঠিকভাবে চিকিৎসা না করা হয় তবে এই লক্ষণগুলো কয়েক মাস বা এমনকি বছর ধরে বারবার হতে পারে।

ফ্লুর পাশাপাশি ক্লান্তিও দেখা দিতে পারে গুরুতর পর্যায়ের ক্ল্যামিডিয়াল বা গনোরিয়া সংক্রমণের ক্ষেত্রে। এটি হেপাটাইটিস এ, বি ও সি এর কারণেও হতে পারে।

ফ্লুর মতো লক্ষণগুলোও এইচআইভি সংক্রমণের প্রথম দিকের উপসর্গও হতে পারেত পারে। যা সংক্রমণের ২-৬ সপ্তাহ পরে দেখা দিতে পারে।