• বৃহস্পতিবার ০৮ জুন ২০২৩ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৪ ১৪৩০

  • || ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
মূল্যস্ফীতির লাগাম টানতে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর স্বাধীনতার ইতিহাসে ৬ দফা অন্যতম মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি ৬ দফার প্রতি জনসমর্থনে রচিত হয় স্বাধীনতার রূপরেখা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বাংলাদেশ-ভারত সেনাবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা জোরদারে প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস আজ সাধ্যমতো চেষ্টা করছি, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী আগামী নির্বাচন একটা চ্যালেঞ্জ: শেখ হাসিনা সবাইকে ৩টি করে গাছ লাগানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর আ.লীগ দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে: শেখ হাসিনা একদিকে মুদ্রাস্ফীতি, অন্যদিকে লোডশেডিংয়ে ভুগছে দেশের মানুষ: প্রধানমন্ত্রীর আক্ষেপ বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানে প্রচেষ্টা অব্যাহত: প্রধানমন্ত্রী ‘প্রতিটি জিনিসের দাম বেড়ে গেছে, এরকম পরিস্থিতি আর হয়েছিল কিনা জানি না’ প্রকৃতি ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষের ভূমিকা অনস্বীকার্য দূষণমুক্ত নির্মল পরিবেশের বিকল্প নেই: রাষ্ট্রপতি বিশ্বের পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে: প্রধানমন্ত্রী তীব্র তাপদাহে প্রাথমিক বিদ্যালয় ৪ দিন বন্ধ ঘোষণা সরকার এই বাজেট বাস্তবায়ন করতে পারবে: শেখ হাসিনা দেশজুড়ে উন্নত রেল নেটওয়ার্ক তৈরি করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী সত্যের জয় হবেই: প্রধানমন্ত্রী

৭ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার স্বেচ্ছায় ফেরত দিল চোর

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২ মার্চ ২০২৩  

চুরির মাল তাও আবার মূল্যবান স্বর্ণালংকার স্বেচ্ছায় ফেরত দিয়ে গেছে চোর। এমন ঘটনা কালেভদ্রে নেই বললেই চলে।
অথচ অবাক করার মতো বিরল এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলি চুঁচুড়া পৌরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের শুঁড়িপাড়ার বাসিন্দা শোভনা লাহিড়ির বাড়িতে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করতেই চোর ওই বাড়িতে মূল্যবান স্বর্ণালংকার ফেরত দিয়ে গেছে।

সপ্তাহ খানেক আগে কয়েক লাখ টাকার স্বর্ণালংকার চুরি হয় বৃদ্ধা শোভনা লাহিড়ির বাড়ি থেকে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেন ওই বৃদ্ধা। তদন্ত শুরু করার পর মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) চুরির সামগ্রী ফেরত দিয়ে যায় চোর! এমন কাণ্ডে অবাক ওই এলাকার বাসিন্দারা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হুগলি চুঁচুড়া পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ড শুঁড়িপাড়ার বাসিন্দা শোভনা লাহিড়ির বাড়িতে গত ২০ ফেব্রুয়ারি চুরি হয়। সকাল সোয়া ৭টা থেকে পৌনে ৮টার মধ্যে শোভনার প্রায় ৭ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার চুরি হয়। এ ঘটনায় চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ করেন তিনি। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। শোভনা বাড়ির নিচে তলার ঘরে থাকেন। দোতলার ঘরে থাকেন তার ছেলে দেবজিৎ, তার স্ত্রী এবং নাতি।

পুলিশ অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করে। পাশাপাশি চুঁচুড়ার স্বর্ণের দোকানগুলোতে খোঁজখবর শুরু করে। এর মধ্যেই শোভনা জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চুরি যাওয়া সব স্বর্ণালংকার একটি পুঁটুলিতে বাঁধা অবস্থায় কেউ ফেলে গেছে তার ঘরে। তাঁর দাবি, সকালে বাড়ির পরিচারিকা সুমনা দাস ঘর ঝাড়ু দিতে গিয়ে খাটের নিচে পুঁটুলিটি দেখতে পান।  

পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর সঞ্জীব মিত্র বলেন, চুরির পর আমি দেবজিৎকে বলেছিলাম, চুরির সামগ্রী ফিরে পাবেন। কারণ এর আগে এ ধরনের কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। তাতে চুরি হওয়ার পর পুলিশ তদন্ত শুরু করতেই চুরি যাওয়া সামগ্রী উদ্ধার হয়েছে। এবারও একই ঘটনা ঘটলো। চোর বুঝতে পেরেছে চোরাই জিনিস হজম করা যাবে না।