• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্রের প্রতি বিএনপির কোনো দায়বদ্ধতা নেই : ওবায়দুল কাদের ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী লাইলাতুল কদর মানবজাতির অত্যন্ত বরকত ও পুণ্যময় রজনি শবে কদর রজনিতে দেশ ও মুসলিম জাহানের কল্যাণ কামনা প্রধানমন্ত্রীর সেবা দিলে ভবিষ্যতে ভোট নিয়ে চিন্তা থাকবে না জনপ্রতিনিধিদের জনসেবায় মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে পারলে ভোটের চিন্তা থাকবে না দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী সরকারের বাস্তবমুখী পদক্ষেপের ফলে শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হার কমেছে ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানিয়ে প্রেসিডেন্টকে শেখ হাসিনার চিঠি রূপপুরে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের জন্য আহ্বান

১৩ বছরের ছাত্রীকে প্রেমপত্র লিখলেন ৪৭ বছরের শিক্ষক!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২৩  

অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীর প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন ৪৭ বছর বয়সী এক স্কুল শিক্ষক। ১৩ বছরের মেয়েকে প্রেমপত্রও লিখে ফেলেছেন তিনি। কিন্তু এই ঘটনা পরিবারকে জানিয়ে দিয়েছে ওই ছাত্রী। ভারতের উত্তরপ্রদেশের কনৌজের এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ছাত্রীর বাবা। শ্লীলতাহানির অভিযোগও দায়ের হয়েছে। তবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত কোনও ব্যবস্থা নেয়নি রাজ্য পুলিশ।

ছাত্রীকে এক পাতার চিঠিতে প্রেম নিবেদন করেছেন ওই শিক্ষক। প্রেমপত্রে ছাত্রীর নামও লিখেছেন তিনি। স্কুলের ছুটি শুরুর আগে যেন তার সঙ্গে দেখা করে ছাত্রী, সেই আকুতিও চিঠিতে তুলে ধরেছেন। লিখেছেন, যদি সত্যিই তাকে ভালোবাসে, তাহলে যেন অবশ্যই তার সঙ্গে দেখা করে ওই ছাত্রী। চিঠি পড়ার পর ছাত্রী যাতে তা ছিঁড়ে ফেলে, সে কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

শিক্ষকের কাছ থেকে চিঠি পাওয়ার বিষয়টি বাবা-মাকে জানায় ওই ছাত্রী। এরপর ওই শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ছাত্রীর বাবা-মা। এ কাজের জন্য শিক্ষককে ক্ষমা চাইতে বলেন তারা। কিন্তু ক্ষমা চাওয়ার বদলে ওই শিক্ষক তাদের মেয়েকে গায়েব করে দেওয়ার হুমকি দেন বলে অভিযোগ করেছেন ছাত্রীর বাবা-মা।

পরে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় গিয়ে নালিশ করেছে ছাত্রীর পরিবার। তার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কনৌজের পুলিশ সুপার কানওয়ার অনুপম সিংহ বলেছেন, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কৌস্তভ সিংহ বলেন, ‘এই ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’