• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্রের প্রতি বিএনপির কোনো দায়বদ্ধতা নেই : ওবায়দুল কাদের ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী লাইলাতুল কদর মানবজাতির অত্যন্ত বরকত ও পুণ্যময় রজনি শবে কদর রজনিতে দেশ ও মুসলিম জাহানের কল্যাণ কামনা প্রধানমন্ত্রীর সেবা দিলে ভবিষ্যতে ভোট নিয়ে চিন্তা থাকবে না জনপ্রতিনিধিদের জনসেবায় মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে পারলে ভোটের চিন্তা থাকবে না দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী সরকারের বাস্তবমুখী পদক্ষেপের ফলে শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হার কমেছে ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানিয়ে প্রেসিডেন্টকে শেখ হাসিনার চিঠি রূপপুরে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের জন্য আহ্বান

সবার কাছে ‘পরিষ্কার’, তবু অস্বীকার করছেন অপূর্ব!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৬ মার্চ ২০২৩  

অনেকটা নীরবে ভারতীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচইতে মুক্তি পেয়েছে নতুন সিরিজ ‘বুকের মধ্যে আগুন’। নির্মাণ করেছেন তানিম রহমান অংশু। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে আছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, ইয়াশ রোহান, শাহনাজ সুমি, তমা মির্জা, তানিয়া আহমেদ প্রমুখ। 

মুক্তির আগেই সিরিজটি বিতর্কের খাতায় নাম লেখায়। কারণ, গুঞ্জন ওঠে, এটি বানানো হয়েছে নব্বই দশকের জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে। যদিও নির্মাতা, শিল্পী বা প্রচারমাধ্যম, সবার দাবি—এটি কাল্পনিক গল্পে নির্মিত। 

কিন্তু গেলো বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) রাতে হুট করেই যখন সিরিজটি হইচইতে মুক্তি পায়, এরপর আর কারও বুঝতে বাকি নেই, এটি সালমান শাহর ঘটনা নিয়েই বানানো হয়েছে। সিরিজের প্রত্যেকটি চরিত্রই সাজানো হয়েছে সালমান শাহর সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন শিল্পী, কুশলী ও পরিবারের মানুষের আদলে। যেমন, সালমান শাহের আদলে দেখা গেছে ইয়াশ রোহানকে, তার স্ত্রীর (সামিরা) মতো দেখা গেছে তমা মির্জাকে, নায়কের মা নীলা চৌধুরীর মতো লেগেছে তানিয়া আহমেদকে, নায়িকা শাবনূরের মতো শাহনাজ সুমি, রাজনীতিক হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের গেটআপে তৌকীর আহমেদ, প্রযোজক আজিজ মোহাম্মদ ভাইয়ের অবয়বে আছেন তারিক আনাম খান। এমনকি এতে সালমান শাহের ব্যবহার করা আলোচিত ডানামেলা গাড়িটিও দেখা গেছে এই সিরিজে।

এতে অপূর্ব অভিনয় করেছেন এএসপি গোলাম মামুনের চরিত্রে। 

শুধু কি চরিত্র? না, গল্পের মূল প্রেক্ষাপটও সালমান শাহর মৃত্যুরহস্যের সঙ্গে হুবহু মিলে যায়। ফলে দর্শক-সমালোচক, সবার কাছেই বিষয়টি দিনের আলোর মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে।
 
কিন্তু বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, এখনও সিরিজটিকে ‘কাল্পনিক’ বলে দাবি করছেন এর মুখ্য চরিত্রের অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। তার দাবি, কল্পনাপ্রসূত গল্পেই এটি বানানো হয়েছে। শনিবার (৪ মার্চ) রাতে একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন তিনি। সেখানেই প্রাসঙ্গিকভাবে জ্বলে ওঠে ‘বুকের মধ্যে আগুন’! 

অপূর্ব বলেন, “এটা একটা ফিকশন হিসেবে পরিচালক তুলে ধরেছেন। আমাদের পক্ষ থেকে আমরা আগেও বলেছি যে এটা ফিকশন। যদি ওনাকে (সালমান শাহ) নিয়ে স্টোরিটা হতো, তাহলে বলা হতো ‘বেজড অন আ ট্রু স্টোরি’ (সত্য ঘটনা অবলম্বনে)। কিন্তু গল্পের কোথাও এটা উল্লেখ নেই। আমরা এটাকে ফিকশন হিসেবেই বিবেচনা করছি।”

সিরিজের অন্যতম চার চরিত্র

সিরিজের অন্যতম চার চরিত্র কথার রেশ ধরে জানতে চাওয়া হয়, যদি সালমান শাহর পরিবার মামলা দায়ের করেন, সেক্ষেত্রে কী করবেন? অপূর্বর জবাব, ‘ওসব নিয়ে এই মুহূর্তে আমার কথা না বলাই ভালো। যদির কথা নদীতেই থাক আরকি!’

হইচই থেকে যখন এই সিরিজের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হয়, তখনই এর নাম থেকে ‘সালমান শাহ’ ঘটনার ইঙ্গিত পায় তার পরিবার ও ভক্তরা। কারণ, সিরিজটির নাম ‘বুকের মধ্যে আগুন’, আর সালমান শাহর শেষ ছবি ‘বুকের ভেতর আগুন’! এজন্য প্রয়াত নায়কের মা নীলা চৌধুরী একটি আইনি নোটিশও পাঠিয়েছেন। সে কারণে সিরিজটির মুক্তি স্থগিত করা হয়। কিন্তু নোটিশের তোয়াক্কা না করে নীরবেই মুক্তি দিয়ে পুনরায় বিতর্কের ঝড় তুললো সংশ্লিষ্টরা।