• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ এআইকে স্বাগত জানায় তবে অপব্যবহার রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে ছেলেরা কেন কিশোর গ্যাংয়ে জড়াচ্ছে কারণ খুঁজে বের করার নির্দেশ প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন নতুন প্রজন্ম গড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার যত ছাত্রীদের চেয়ে ছাত্ররা পিছিয়ে, কারণ খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসির ফল হস্তান্তর জলাধার ঠিক রেখে স্থাপনা নির্মাণে প্রকৌশলীদের আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ শুরু আজ, পাবেন ৫ হাজার টাকা

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ ২০২৩  

আজ (বুধবার) থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন নিয়োগ পাওয়া শিক্ষকদের ১০ দিনের ইনডাকশন প্রশিক্ষণ শুরু‌। এ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণের জন্য শিক্ষকরা ৫ হাজার টাকা সম্মানী পাবেন। চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির (পিইডিপি-৪) আওতায় এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। দেশব্যাপী এ প্রশিক্ষণে ব্যয় হবে ৩১ কোটি ৮৫ লাখ টাকার বেশি।

সোমবার (২৭ মার্চ) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উপপরিচালক (প্রশিক্ষণ) মো. মাহবুবুর রহমান বিল্লাহ সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির (পিইডিপি) আওতায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে ২৯১টি উপজেলা/থানা রিসোর্স সেন্টারে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের ১০ দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। মোট ৪৩৪টি ব্যাচে ইনডাকশন প্রশিক্ষণে মোট হবে ব্যয় হবে ৩১ কোটি ৮৫ লাখ ৩ হাজার টাকা।

এ প্রশিক্ষণের সময়কাল ১০ দিন। প্রশিক্ষণ শুরু করার পর বিরতিহীনভাবে (জাতীয় দিবস ও সরকারি ছুটির দিন ছাড়া) চলবে। প্রতি ব্যাচে প্রশিক্ষণার্থী সংখ্যা হবে সর্বনিম্ন ২০ জন এবং সর্বোচ্চ ২৫ জন। একই উপজেলা থেকে শিক্ষক পাওয়া না গেলে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের মাধ্যমে একই জেলার অন্য উপজেলা থেকে শিক্ষক ডেপুটেশন দেওয়া যাবে। তাছাড়া ২০১৮ সালে সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদানকৃত কোনো শিক্ষক ডিপিএড ও ইনডাকশন প্রশিক্ষণ গ্রহণ না করে থাকলে তাদেরকে এ প্রশিক্ষণে অন্তর্ভুক্ত করা যাবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে ব্যাচ ও অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা নির্ধারণ করা হবে। সে অনুযায়ী প্রশিক্ষণ পরিচালনা করতে হবে। প্রাক-প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকরা এ প্রশিক্ষণে অন্তর্ভুক্ত হবেন না। প্রশিক্ষণ ম্যানুয়াল অনুসারে প্রশিক্ষণ পরিচালনা করতে হবে।

ইউআরসি-টিআরসি ইন্সট্রাক্টররা প্রশিক্ষণ শুরুর আগেই প্রশিক্ষণ পরিচালনার প্রয়োজনীয় উপকরণ সংগ্রহ করে নির্ধারিত দিনে সরবরাহ করবেন। উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিসার প্রশিক্ষণ পরিকল্পনা অনুযায়ী ব্যাচের অংশগ্রহণকারীদের ডেপুটেশন দেবেন। উপজেলা শিক্ষা অফিসার শিক্ষকের নাম, পদবী ও অন্যান্য তথ্য পিইএমআইএস সফটওয়্যারে এন্ট্রি করে কেবলমাত্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নবনিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষককে ইনডাকশন প্রশিক্ষণার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেবেন। পিইএমআইএস সফটওয়্যারে এন্ট্রি করা ছাড়া প্রশিক্ষণে মনোনয়ন দেওয়া যাবে না।