• শুক্রবার ২৪ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪৩১

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সমৃদ্ধি সূচকে ভারত-পাকিস্তান থেকে এগিয়ে বাংলাদেশ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২৪  

বৈশ্বিক সমৃদ্ধি সূচকে ভারত ও পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ। ২০২৩ সালের জন্য করা এ তালিকায় সমৃদ্ধি সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ১৬৪টি দেশের মধ্যে ৯৯তম। আর ভারতের অবস্থান ১৪৬তম ও পাকিস্তানের অবস্থান ১৫০তম।
মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক থিংক ট্যাংক আটলান্টিক কাউন্সিলের স্বাধীনতা ও সমৃদ্ধি কেন্দ্রের ‘ফ্রিডম অ্যান্ড প্রসপারিটি ইন বাংলাদেশ’ (বাংলাদেশে স্বাধীনতা ও সমৃদ্ধি) শীর্ষক প্রতিবেদনে তথ্য উঠে এসেছে।

এদিকে, সমৃদ্ধ সূচকে এগিয়ে থাকলেও স্বাধীনতা সূচকে ভারত ও পাকিস্তান থেকে পিছিয়ে গেছে বাংলাদেশ। এ সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪১তম। আর ভারত ১০৪তম ও পাকিস্তান রয়েছে ১১৩তম অবস্থানে।

বৈশ্বিক সমৃদ্ধি সূচকের তালিকা করার জন্য স্বাস্থ্য, বৈষম্য, পরিবেশগত অবস্থা, সংখ্যালঘু অধিকার এবং শিক্ষাসহ মাথাপিছু জিডিপির মতো বিভিন্ন কারণ বিবেচনা করা হয়েছে। আর স্বাধীনতা সূচকের তালিকা করার জন্য রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক এবং আইনি অবস্থার পরিমাপ করা হয়েছে।

আটলান্টিক কাউন্সিলের প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বাস্থ্য ও শিক্ষার মতো ক্ষেত্রগুলোতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে। আর বৈষম্য এবং পরিবেশগত স্থায়িত্বের বিভিন্ন সমস্যা মোকাবিলায় বাংলাদেশের অগ্রগতি আরো বেশি হয়েছে। কিন্তু সংখ্যালঘুদের অধিকার নিশ্চিতে বাংলাদেশের অবস্থান খারাপ হয়েছে।

বিগত তিন দশকে বাংলাদেশে আয়ের দিকেও ভালো উন্নতি হয়েছে। ১৯৯৫ সালের ১৩৮তম অবস্থান থেকে ২০২২ সালে বাংলাদেশ ১১২তম স্থানে উঠে এসেছে।

আটলান্টিক কাউন্সিল মনে করে, বাংলাদেশকে একটি সামগ্রিক দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণ করতে হবে। শুধু সাক্ষরতার হার বৃদ্ধি এবং শিক্ষার প্রসার বৃদ্ধিই নয়, শিক্ষার মানোন্নয়নের দিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে।