• শুক্রবার ২৪ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪৩১

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সড়ক নেটওয়ার্কে সাসেক প্রকল্প পাল্টে দিচ্ছে উত্তরের দৃশ্যপট

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৩ এপ্রিল ২০২৪  

উত্তরাঞ্চলে উন্নয়নের বৃহৎ কর্মযজ্ঞ সাউথ এশিয়া সাবরিজিওনাল ইকোনমিক কো-অপারেশন প্রকল্প (সাসেক-২) পাল্টে দিচ্ছে উত্তরের দৃশ্যপট। অর্থনৈতিক ও যোগাযোগ ক্ষেত্রে আনছে অভূতপূর্ব পরিবর্তন। সাসেকের মাধ্যমে উন্নয়নের ছোঁয়া এখন উত্তরজুড়ে। চলতি বছরেরর মধ্যেই সাসেকের বগুড়া অংশের কাজ শেষ হচ্ছে। অপরদিকে আসন্ন ঈদুল ফিতরকেন্দ্রিক ঈদযাত্রায় মহাসড়কে চলাচল নির্বিঘœ করতে সাসেক সংশ্লিষ্টরা বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে।

ঈদযাত্রাকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে এই প্রকল্পের বগুড়া, সিরাজগঞ্জ ও রংপুর অংশে মোট সাতটি ওভারপাস ও আন্ডারপাস খুলে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে বগুড়া অংশে এই প্রকল্পের কাজ ৮২ শতাংশ শেষ হয়েছে, আর পুরো প্রকল্পের মোট ৭৩ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে বলে সাসেক-২ প্রকল্প কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। মহাসড়কের উন্নয়ন ও আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সড়ক নেটওয়ার্কে যুক্ত হতে সাসেক-২ প্রকল্প বাস্তবায়ন শুরু হয় ২০১৯ সালে।

এলেঙ্গা থেকে রংপুরের মডার্ন মোড় পর্যন্ত ১৯০ কিলোমিটার সড়কসহ অবকাঠামো নির্মাণে এই মেগা প্রকল্পের তৃতীয় ধাপ শুরু হবে সাসেক-৩ প্রকল্পের মাধ্যমে। তৃতীয় ধাপে সাসেক প্রকল্পটি আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্কে যুক্ত হবে। সাসেক-৩ প্রকল্প যাবে বাংলাবান্ধা পর্যন্ত। এর আরেকটি প্রকল্প শেষ হবে বুড়িমারি পর্যন্ত। সাসেক-২ পরবর্তী দুটি প্রকল্প দুটি স্থলবন্দরে সংযুক্ত হবে। সাসেক প্রকল্পটি শেষ হলে এই যোগাযোগ নেটওয়ার্কটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যুক্ত হওয়ার মাধ্যমে এ অঞ্চলে আমূল পরিবর্তন বয়ে আনবে। ইতোমধ্যে সাসেক-২ প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নয়নের এই পরিবর্তনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে।

সূত্র জানায়, সাসেক-২ প্রকল্পে প্রথমে ব্যয় ধরা হয়েছিল প্রায় সাড়ে ১৬ হাজার কোটি টাকা। ভূমি অধিগ্রহণসহ অন্যান্য ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় সংশোধনের পর এর প্রাক্কলন ব্যয় দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৮ হাজার ৬৭৯ কোটি টাকা। সাসেক সূত্র জানায়, গোবিন্দগঞ্জ, পলাশবাড়ী ও এলেঙ্গায় অবকাঠামো (ফ্লাইওভার) নির্মাণে এখনো জায়গা বুঝে না পওয়ায় কিছুটা সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। তবে আগামী বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পের পুরো কাজ শেষ হবে।

প্রকল্প উপ-পরিচালক জয় প্রকাশ চৌধুরী জানান, মোট ১১ প্যাকেজের এই প্রকল্পের বগুড়া অংশের কাজ শেষ হবে চলতি বছরের ডিসেম্বরে। আর সাসেক-২ এর পুরো প্রকল্প সম্পন্ন হবে আগামী বছরের ডিসেম্বরে। বগুড়া অংশে তিনটি প্যাকেজের আওতায় রয়েছে ৬৫ কিলোমিটার মহাসড়ক ও ১৪টি ওভারপাস নির্মাণ। তিনি জানান, ঈদযাত্রা নির্বিঘœ করতে বগুড়া অংশে তিনমাথা ওভারপাস, ফুলতলা ও বি-ব্লক আন্ডারপাস খুলে দেওয়া হয়েছে। এগুলো দিয়ে যানবাহন চলাচল শুরু করেছে।

এ ছাড়া সিরাজগঞ্জের মুলিবাড়ি, পাঁচিলা এবং রংপুরের মীর্জাপুরে আরও চারটি আন্ডারপাস একই উদ্দেশ্যে খুলে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বগুড়ার বনানী ও মাটিডালি এলাকায় রাস্তা প্রশস্ত করে দেওয়া হয়েছে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রায় স্বস্তি আনতে। সাসেক-২ প্রকল্পে দ্রুতগতির চার লেন ছাড়াও মন্থরগতির যানবাহনের জন্য রয়েছে আরও দুটি লেন। প্রকল্পের সামান্য কিছু অংশ বাদে পুরো প্রকল্প ছয় লেনে হচ্ছে। তবে সাসেক প্রকল্প ঘিরে গোটা উত্তরে পরিবর্তনের সুর। কারণ, এটি শুধু একটি যোগাযোগ নেটওয়ার্ক নয়,  অর্থনৈতিক উন্নয়নের আরেকটি সোপান।

আর্ন্তজাতিক সড়ক যোগাযোগের নেটওয়ার্ক। এটির বাণিজ্যিক গুরুত্ব রয়েছে অনেক বেশি। এটি শেষ হলে সংযুক্ত দেশগুলোর সঙ্গে বাণিজ্যিক লেনদেনও বাড়বে। এই উন্নয়ন সাসেক প্রকল্পের মাধ্যমে দৃশ্যমান হয়েছে। অপরদিকে সাসেক সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, বগুড়ার শেরপুর ও বনানীসহ আরও কিছু স্থানে পৃথক প্রকল্পের মাধ্যমে প্রয়োজনের নীরিখে ফ্লাইওভার নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।