• সোমবার ২৪ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৯ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে মাদক কারবারি নিহত

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০২৩  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে আব্দুল হেকিম ওরফে টাক্কা (৩২) নামের এক মাদক কারবারি নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (১৭ মার্চ) রাতে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান। নিহত ব্যক্তি উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের কল্যাণপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, শুক্রবার বিকেলে স্থানীয়দের সঙ্গে মাদক কারবারিদের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় দুপক্ষের নারী-পুরুষসহ অন্তত আটজন আহত হন।

আহতরা হলেন, আব্দুর রহমানের ছেলে চুন্নু মিয়া (৩০), বাবুল মিয়ার স্ত্রী রুপসা বেগম (৪৫), মৃত কাজী সোনা মিয়ার ছেলে কাজী সিরাজ (৬২) ও তার ছেলে কাজী সালেক মিয়া (৩৭), ফয়জুল হক মিয়ার ছেলে মো. রনি মিয়া (৩২) ও সালেক মিয়া ( ৩৪), হান্নান মিয়ার ছেলে ফয়সাল মিয়া ও আলিম মিয়ার ছেলে মো. সোহেল মিয়া। তারা সবাই একই গ্রামের বাসিন্দা।

আখাউড়া উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান জানান, আব্দুল হেকিম টাক্কার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। স্থানীয় শিক্ষনবিশ এক আইনজীবী মাদক কারবারে বিরোধিতা করলে হেকিমরা ক্ষুব্ধ হন। সম্প্রতি রনিকে মারধরের হুমকি দেয় হেকিম।

শুক্রবার বিকেলে রনি তার নিজ বাড়িতে এলে টাক্কা তার ওপর চড়াও হন। বিষয়টি এক পর্যায়ে মাদক কারবারিদের সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দাদের সংঘর্ষে রূপ নেয়। এতে গুরুতর আহত হেকিমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুল ইসলাম জানান, টাক্কা একজন মাদক কারবারি। সম্প্রতি নারীসহ টাক্কাকে আটক করা হয়েছিল। ছাড়া পাওয়ার পর স্থানীয়রা তাকে নিয়ে ঠাট্টা করতেন। বৃহস্পতিবার মোটরসাইকেল নিয়ে এলাকায় ঘুরাঘুরির সময় এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়৷ পরদিন শুক্রবার ওই ব্যক্তি তার ভাইয়ের সঙ্গে মাদক কারবারিদের সংঘর্ঘ হয়।

ওসি জানান, টাক্কার বিরুদ্ধে থানায় পাঁচটি মামলা রয়েছে। এরমধ্যে তিনটি মাদক মামলা চলমান।