• সোমবার ২৪ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১০ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ

নতুন ধরনের প্রতারণার কথা জানাল পুলিশ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২৪  

তিনি একাধারে ক্রেতা, বিক্রেতা এবং ডিলার। ক্রেতা সেজে যান ডিলারের কাছে। বিক্রেতা সেজে যান আবার ক্রেতার কাছে। আর এভাবেই নির্মাণাধীন ভবন মালিকদের কাছে রড সরবরাহের কথা বলে হাতিয়ে নেন লাখ লাখ টাকা। আরিফুর রহমান নামে একজনকে গ্রেফতারের পর পুলিশ বলছে, প্রতারণার নতুন একটি ধরণ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন তারা। সময় সংবাদকে এসব তথ্য জানিয়েছেন কেরানীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহাব উদ্দিন কবির।

রাজধানীর কদমতলীর চেয়ারম্যান বাড়ি এলাকার একটি বাসায় সম্প্রতি অভিযান চালায় পুলিশ। বাসাটির নিচতলার এক ভাড়াটিয়ার খাটের নিচে লুকিয়ে রাখা আট লাখ ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। আর এই টাকা উদ্ধারে পুলিশকে ঢাকা থেক নরসিংদী, সেখান থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পরে আবারও ঢাকা এভাবে কয়েক দিন অভিযান চালাতে হয়েছে। যাকে গ্রেফতার করা হয়েছে তার নাম আরিফুর রহমান।

পুলিশ জানিয়েছে, নির্মাণাধীন একটি ভবনের মালিককে ১১ লাখ ২০ হাজার টাকার রড সরবরাহের কথা ছিল আরিফুর রহমানের। ওই ভবন মালিক রড প্রস্তুতকারক কোম্পানির অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে অপেক্ষা করতে থাকেন রডের জন্য। রড আর আসে না। খবর নিয়ে জানতে পারেন আরিফুর রহমান রড বিক্রি করে পালিয়ে গেছেন।

এই মামলা তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ প্রতারণার একটি নতুন ধরণ সম্পর্কে জানতে পেরেছে। গ্রেফতারকৃত আরিফুর নিজেকে বড় একজন রড বিক্রেতা পরিচয় দিয়ে নির্মাণাধীন ভবন মালিকদের টার্গেট করেন। কেউ তার কাছ থেকে রড কিনতে রাজি হলে কোম্পানির অ্যাকাউন্ট নম্বরে টাকা পাঠাতে বলেন। টাকা জমার রশিদ নিয়ে আরিফ যান কোম্পানির কাছে। একটি ডিলারের ঠিকানা দিয়ে অর্ডারকৃত রড পাঠাতে বলেন। পরে সেখান থেকে ওই রড নিয়ে অন্য কোথাও বিক্রি করে দেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহাব উদ্দিন কবির বলেন, ক্রেতা সেজে আরিফুর রহমান যান ডিলারের কাছে। বিক্রেতা সেজে যান আবার ক্রেতার কাছে। এভাবে অসংখ্য মানুষের কাছ থেকে রড সরবরাহের কথা বলে বিপুল টাকা হাতিয়ে নেয়ার তথ্যপ্রমাণ পাওয়া গেছে।

‘তদন্ত করে দেখেছি, তিনি এর আগেও বেশকিছু ঘটনা ঘটিয়েছেন। বিশেষ করে রড প্রতরণা তার একটি অভিনব প্রতারণার পদ্ধতি’, যোগ করেন পুলিশের এ কর্মকর্তা।