• সোমবার ২৭ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমাল : ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়: প্রধানমন্ত্রী সকালেই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে রেমাল, আছড়ে পড়বে মধ্যরাতে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : পায়রা ও মোংলা বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান

বরগুনায় ২২০ কেজি হরিণের মাংস উদ্ধার, আটক ৩

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৯ এপ্রিল ২০২৪  

বরগুনায় ২২০ কেজি হরিণের মাংসসহ তিনজনকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। সোমবার (০৮ এপ্রিল) জেলার পাথরঘাটা উপজেলায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। পাথরঘাটা কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট কমান্ডার এম ফিরোজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সোমবার (৮ এপ্রিল) সকালে উপজেলার হরিনঘাটা ইকোপার্ক এলাকার বিষখালী কোস্টগার্ডের বিশেষ অভিযান চালিয়ে নদীতে একটি ইঞ্জিনচালিত একটি ট্রলার থেকে তাদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে তিনটি হরিণের মাথা ও ২২০ কেজি মাংস উদ্ধার করা হয়। পরে উদ্ধারকৃত মাংস ও হরিণের মাথাসহ আটকৃতদের পাথরঘাটা বন বিভাগে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আটকরা হলেন পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী তাফালবাড়িয়ার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের আলী হোসেনের ছেলে আফজাল হোসেন (৪৫), আব্দুল হকের ছেলে হারুন (৩৫), আব্দুল করিম হাওলাদারের ছেলে আব্দুল মান্নান (৫৫)।

আটক আফজাল হোসেন জানান, গত পাঁচদিন আগে পাথরঘাটার বলেশ্বর নদীতে মাছ শিকারের জন্য বের হন তারা। পরপর দুদিন মাছ না পেয়ে মাঝি আবুল বাশারের নির্দেশে সুন্দরবন প্রবেশ করে হরিণ শিকার করে তারা। সেখান থেকে দশটি হরিণ শিকার করে মাংস নিয়ে সোমবার সকালে বিষখালি নদী হয়ে পাথরঘাটার দিকে আসেন তারা। পরে কোষ্টগার্ডের ধাওয়া খেয়ে রশিদ শিকদারের ছেলে আবুল বাসার মাঝি ও সাহাদাত হোসেন পালিয়ে যায়।

পাথরঘাটা বিসিজি কন্টিজেন্ট কমান্ডার ফিরোজ্জামান জানান, পাচার করার উদ্দেশ্যে একটি চক্র ট্রলারযোগে সুন্দরবন থেকে হরিণের মাংস নিয়ে বিষখালি নদী দিয়ে পাথরঘাটায় আসছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষখালী নদীতে অবস্থান নেন তারা। সকাল ১০টার দিকে চোরাকারবারীরা কোস্ট গার্ড সদস্যদের দেখে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করে। পরে ধাওয়া করে হরিণঘাটা ইকোপার্কের দক্ষিণে বিষখালী নদী থেকে তিনটি হরিণের মাথা ও ২২০ কেজি মাংসসহ তাদের আটক করা হয়। এ সময় সাথে থাকা আরো দুজন কৌশলে পালিয়ে যায়।

হরিণঘাটা বনবিভাগের বিট কর্মকর্তা আব্দুল হাই জানান, উদ্ধার হওয়া তিনটি মাথা ও ২২০ কেজি হরিণের মাংস বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মাংসগুলো বিকেল পাঁচটায় আদালতের নির্দেশে মাটি চাপা দেয়া হয়েছে। এছাড়াও আটককৃতদের বিরুদ্ধে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলা দিয়ে পাথরঘাটা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।