• শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

  • || ১৯ শা'বান ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ‘কোনো একটি জিনিস না খেলে রোজা হবে না, এ মানসিকতা পাল্টাতে হবে’ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে

নাশকতার মামলায় বিএনপির ৭ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২৩  

রাজধানীর পল্টন থানার নাশকতার অভিযোগের পৃথক দুই মামলায় বিএনপির ৭ নেতাকর্মীর দুই দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। শনিবার (৯ ডিসেম্বর) বিকালে শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন মাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুল হুদা চৌধুরীর আদালত এই রিমান্ডের আদেশ দেন।

এদিন পল্টন থানার পৃথক দুটি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামিদের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক প্রত্যেকের দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট পল্টন থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার সাব-ইন্সপেক্টর শাহ আলম এতথ্য নিশ্চিত করেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন, মো. সিদ্দিক হাওলাদার, মো. দিলগনি, নুর মোহাম্মদ শাহিন, নাজির হোসেন, মো. মাসুদ, মো. সোহাগ হাওলাদার  ও মোহাম্মদ আলমগীর। গত ৮ ডিসেম্বর রাজধানীর শাহবাগ থানাধীন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির পূর্বঘোষিত মহাসমাবেশে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা হাতে লাঠিসোঠা, লোহার রড, ইট পাটকেল ও ককটেলসহ অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রধান বিচারপতি বাস ভবনের সামনে বে-আইনি সমাবেশ করে। তারা সেখানে রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান দেয় ও মিছিল করতে থাকে। ওই সময় তারা বৈশাখী পরিবহনে বাসসহ একাধিক বাস, পিকআপ ভাংচুর করে, যাতে করে আনুমানিক প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়।

মামলায় মিছিলকারীদের বিরুদ্ধে রাস্তায় জনসাধারণ ও যানবাহনের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিরও অভিযোগ করা হয়েছে।

ওই ঘটনায় রাজধানীর একাধিক থানায় একাধিক মামলা দায়ের করে পুলিশ।