• শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

  • || ১৯ শা'বান ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ‘কোনো একটি জিনিস না খেলে রোজা হবে না, এ মানসিকতা পাল্টাতে হবে’ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে

স্বর্ণের চেইনের জন্য হত্যা করা হলো বৃদ্ধাকে, আসামির যাবজ্জীবন

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০২৩  

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় বৃদ্ধা আবেদা খাতুনকে হত্যার দায়ে আল আমিন মল্লিক নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২ এর বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন উর্মি এ রায় ঘোষণা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঐ আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. হাছান ছরওয়ার্দী।

সাজাপ্রাপ্ত আল আমিন লৌহজং উপজেলার পালগাওঁ গ্রামের রাজ্জাক মল্লিকের ছেলে।

জানা যায়, ২০১২ সালের ১৫ আগস্ট লৌহজং উপজেলার পালগাওঁ গ্রামের রুস্তম হাওলাদারের ছেলে ফরহাদ হাওলাদার ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে নিজ বাড়িতে বেড়াতে আসেন। বাড়িতে এসে ফরহাদ তার মাকে বাড়িতে না পেয়ে নিজের ছেলে মিজানুর ও স্ত্রীকে খুঁজতে পাঠান। এ সময় ফরহাদের স্ত্রী আল আমিন মল্লিককে তাদের বাড়ির পেছনে বসে থাকতে দেখেন। তাকে দেখে আল আমিন দ্রুত পালিয়ে যান। পরে ফরহাদ খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে বসতঘরের পেছনে ধান ক্ষেতে পানির মধ্যে তার মায়ের লাশ দেখতে পান। তার মা স্বাভাবিকভাবে মারা গেছেন ভেবে দাফন শেষে সন্ধ্যার দিকে বাড়িতে ফিরে আসেন। পরে বাড়িতে আসামি আল আমিনের দুইটি স্যান্ডেল পড়ে থাকতে দেখেন ফরহাদ।

এরপর ২০১২ সালের ১৬ আগস্ট সকাল ১০টার দিকে ঐ গ্রামের লোকজনসহ ফরহাদ আসামি আল আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এ সময় আল আমিন আবেদা খাতুনের গলায় থাকা নয় আনা ওজনের সোনার চেইন চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় তাকে বাধা দেন। এতে আবেদা খাতুনকে দেয়ালের সঙ্গে ধাক্কা মেরে পানিতে ফেলে দেন। পরে শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার করেন।

এ ঘটনায় ফরহাদ বাদী হয়ে গত ২০১২ সালের ১৬ আগস্ট লৌহজং থানায় মামলা দায়ের করে। বুধবার আদালত সাক্ষ্য-প্রমাণ গ্রহণ শেষে এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর মো. সিরাজুল ইসলাম পল্টু জানান, সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন। একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বাদীর মায়ের গলার চেইন চুরির করায় অপর একটি ধারায় তাকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরো এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।