• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

হিমাগারে আজ থেকে আলু বিক্রি হবে ২৬-২৭ টাকায়

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১ নভেম্বর ২০২৩  

বাজারে আলুর দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকার এবার হিমাগার বা কোল্ডস্টোরেজ পর্যায়ে সরকার নির্ধারিত মূল্যে আলু বিক্রি নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছে। সরকার নির্ধারিত দামে প্রতি কেজি আলু ২৬ থেকে ২৭ টাকায় বিক্রয় করার জন্য জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা প্রদান করে চিঠি পাঠিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বুধবার থেকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে হবে বলে জেলা প্রশাসকদের বলা হয়েছে। গত সোমবার এ বিষয়ে একটি চিঠি দিয়ে দেশের সব জেলা প্রশাসককে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

১৯৫৬ সালের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ধারা অনুযায়ী এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। এছাড়া আলুর দাম নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে গতকাল বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আলু আমদানির সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আলু ব্যবসায়ীরা কোল্ডস্টোরেজ ও খুচরা পর্যায়ে সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে আলু বিক্রি করছেন। জনস্বার্থে আলুর বাজার স্থিতিশীল করার লক্ষ্যে জেলা প্রশাসকেরা জরুরি ভিত্তিতে তাঁর জেলায় থাকা কোল্ডস্টোরেজ থেকে সরকার নির্ধারিত মূল্যে আলু বিক্রির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

এ ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকেরা জেলা বা উপজেলা পর্যায়ে একজন উপযুক্ত কর্মকর্তাকে এক বা একাধিক স্টোরেজ তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব দেবেন এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে সরকার নির্ধারিত মূল্যে আলু বিক্রয় করবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

সরকার গত ১৪ সেপ্টেম্বর আলুর বিক্রয়মূল্য কোল্ডস্টোরেজ পর্যায়ে প্রতি কেজি ২৬ থেকে ২৭ টাকা এবং খুচরা পর্যায়ে সর্বোচ্চ প্রতি কেজি ৩৫ থেকে ৩৬ টাকা নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু সরকার নির্ধারিত মূল্যে খুচরা বা কোল্ডস্টোরেজ পর্যায়ে আলু বিক্রয় করা হচ্ছে না।

সে কারণেই সরকার ১৯৫৬ সালের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী কোল্ডস্টোরেজ থেকে নির্ধারিত মূল্যে আলু বিক্রির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সব জেলা প্রশাসককে নির্দেশ প্রদান করেছে বলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।