• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ এআইকে স্বাগত জানায় তবে অপব্যবহার রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে ছেলেরা কেন কিশোর গ্যাংয়ে জড়াচ্ছে কারণ খুঁজে বের করার নির্দেশ প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন নতুন প্রজন্ম গড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার যত ছাত্রীদের চেয়ে ছাত্ররা পিছিয়ে, কারণ খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসির ফল হস্তান্তর জলাধার ঠিক রেখে স্থাপনা নির্মাণে প্রকৌশলীদের আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

ধানের জাত উদ্ভাবনে হচ্ছে ছয়টি আঞ্চলিক অফিস

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২৩  

নতুন ৬টি আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপনের মাধ্যমে স্থানভিত্তিক ধানের জাত ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং বিদ্যমান গবেষণাগার উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ৩৬৯ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি)। ২০২৩ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২৭ সালের ডিসেম্বর মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

এই প্রকল্পসহ ১৮টি প্রকল্প অনুমোদন করেছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১১ হাজার ৩৮৭ কোটি ৯১ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ৭ হাজার ৪৪০ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। এছাড়া বৈদেশিক অর্থায়ন ৩ হাজার ৮৬১ কোটি ৭২ লাখ এবং সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ৮০ কোটি ৮ লাখ টাকা।

মঙ্গলবার (৬ জুন) শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন একনেক চেয়ারপারসন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য: ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পরিবর্তিত জলবায়ুর সঙ্গে মিল রেখে স্থানভিত্তিক ধানের জাত ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন। পাশাপাশি ধানের জাত উন্নয়নসহ ব্রি’র মূল গবেষণা কাজে সহায়তা করা।

প্রধান কার্যক্রম: স্থানভিত্তিক ধানের জাত ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং ব্রি’র গবেষণা কাজ জোরদার করার লক্ষ্যে ৬টি নতুন অস্থায়ী আঞ্চলিক কার্যালয় ও ৬টি স্যাটেলাইট অফিস স্থাপন করা হবে। এছাড়া ১২০ একর ভূমি অধিগ্রহণ, কমপক্ষে ২০টি নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন বা উন্নয়ন এ প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য। একই সঙ্গে ৬টি প্রতিকূল পরিবেশ সহনশীল ধানের জাত উদ্ভাবন এবং ৩০০টি জার্মপ্লাজম সংগ্রহ করা হবে।

পাশাপাশি ১৫ হাজার ৩৭৫টি বিভিন্ন প্রায়োগিক পরীক্ষণ দেওয়া, ক্রসিং সুবিধার নেট হাউস, ৬টি গভীর নলকূপ, গবেষণা মাঠ উন্নয়ন ও গবেষণা মাঠের নিরাপত্তা দেয়াল (৪২০০ আরএম) নির্মাণ করা হবে। স্যাটেলাইট স্টেশনে এবং গবেষণার জন্য যন্ত্রপাতি, কম্পিউটার, মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর ও আসবাবপত্র কেনা হবে।