• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

সাধ্যমতো চেষ্টা করছি, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২৩  

সারাদেশে একদিকে চলছে তীব্র তাপপ্রবাহ, অন্যদিকে প্রতিদিনই বাড়ছে লোডশেডিংয়ের মাত্রা। এ অবস্থায় জনগণের ভোগান্তি চরম রূপ নিয়েছে। বিশেষত ঢাকাসহ বিভিন্ন নগরীর বাসিন্দাদের অসহনীয় গরমে হাপিত্যেশ অবস্থা। তবে জনগণের দুর্ভোগ লাঘবে সরকার সাধ্যমতো চেষ্টা করছে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৫ জুন) বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত নেতারা গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ কথা জানান।

চলমান তাপপ্রবাহের মধ্যে লোডশেডিংয়ে জনগণের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে উল্লেখ করে সরকারপ্রধান বলেন, আমরা আমাদের সাধ্যমতো চেষ্টা করছি ও এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।

তিনি বলেন, ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে জোরপূর্বক গুম, হত্যা ও বিচারহীনতার সংস্কৃতি চালু করেছিল বিএনপি। আজকে আমরা ন্যায়বিচার না পাওয়ার পরিস্থিতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে পেরেছি। আওয়ামী লীগ দেশের মানুষকে ন্যায়বিচার পাওয়ার ব্যবস্থা ফিরিয়ে দিয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে। দেশকে বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের করে এনেছে। অথচ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে পরিবারের অধিকাংশ সদস্যসহ হত্যার ঘটনায় ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করেছিল বিএনপি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতাকে হত্যার পর তার পিতৃহত্যার বিচার চাওয়ার ও বিচার পাওয়ার কোনো অধিকার আমাদের ছিল না। এটি ছিল মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। আমরা ন্যায়বিচার না পাওয়ার পরিস্থিতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে পেরেছি। আওয়ামী লীগ সরকার সবসময় ন্যাবিচারে বিশ্বাস করে। আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের ন্যায়বিচার পাওয়ার ব্যবস্থা করেছে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সরকার বিচারব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজড করেছে, যেন মানুষ ভোগান্তির সম্মুখীন না হয়ে স্বল্প সময়ের মধ্যে বিচার পেতে পারে।

 

প্রধানমন্ত্রী জানান, তার সরকার কোভিড-১৯ মহামারির সময় এটিকে (বিচার কার্যক্রম) ভার্চুয়াল করেছে, যেন মানুষ ঘরে বসে স্বল্প সময়ের মধ্যে ন্যায়বিচার পেতে পারে।