• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ এআইকে স্বাগত জানায় তবে অপব্যবহার রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে ছেলেরা কেন কিশোর গ্যাংয়ে জড়াচ্ছে কারণ খুঁজে বের করার নির্দেশ প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন নতুন প্রজন্ম গড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার যত ছাত্রীদের চেয়ে ছাত্ররা পিছিয়ে, কারণ খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসির ফল হস্তান্তর জলাধার ঠিক রেখে স্থাপনা নির্মাণে প্রকৌশলীদের আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

আরাভকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ‘কোনও বাধা নেই’

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৩ মার্চ ২০২৩  

পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) পরিদর্শক মামুন ইমরান খান হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি দুবাইয়ের আলোচিত স্বর্ণ ব্যবসায়ী আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলাম আপনকে দেশে ফিরিয়ে আনতে কোনও বাধা নেই। পুলিশের একটি সূত্র এ তথ্য জানিয়ে বলছে, বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী না হলেও পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত কাগজপত্র ইন্টারপোলে পাঠানো হয়েছে। এরইমধ্যে ইন্টারপোল রেড নোটিশ জারি করেছে। তাকে যেকোনও সময় দুবাই থেকে দেশে ফেরত আনা হবে।

সূত্রটি জানিয়েছে, আরাভ খান বর্তমানে ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহার করছে এবং দুবাইয়ের রেসিডেন্ট কার্ড পেয়েছে। তবে আরাভ খান যে বাংলাদেশে পুলিশ সদস্য হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত; এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র ইন্টারপোলে পাঠানো হয়েছে। ইন্টারপোল এসব বিষয়ে অবগত হয়ে রেড নোটিশ জারি করেছে। বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী না হলেও অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করে তাকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনতে কাজ করছে বাংলাদেশ পুলিশ সদর দফতরের এনসিবি শাখা। ইন্টারপোল এবং দুবাই পুলিশের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে এনসিবির কর্মকর্তারা। ইন্টারপোল এবং দুবাই পুলিশের সাথে সমন্বয় করে কোন প্রক্রিয়ায় আরাভকে বাংলাদেশে আনা হবে— এসব বিষয়ে এনসিবির কর্মকর্তারা কাজ করছেন।

সূত্রটি আরও জানায়, রেড নোটিশ জারির পর থেকেই দুবাই পুলিশের নজরদারিতে রয়েছে আরাভ খান। দুবাই থেকে যেন অন্য কোথাও পালিয়ে যেতে না পারেন, সে ব্যাপারেও নজরদারি বাড়িয়েছে সেই দেশের পুলিশ। এসব বিষয় দুবাইয়ের বাংলাদেশের দূতাবাস খোঁজখবর রাখছে।

এছাড়া আরাভ খান মাত্র কয়েক বছরে কীভাবে এত বিশাল সম্পত্তির মালিক হয়েছে, এর পেছনে কারা রয়েছে; এসব বিষয় খতিয়ে দেখছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের পর বাংলাদেশ থেকে সে কীভাবে ভারতে পালিয়ে গেছে, ভারতে পাসপোর্ট তৈরি করে আবার কীভাবে বাংলাদেশ ঘুরে গেছে, এসব বিষয়ও খতিয়ে দেখছেন গোয়েন্দারা। সূত্রটি জানিয়েছে, দেশে এসে ঘুরে যাওয়ার পেছনে পুলিশ পরিদর্শক পদমর্যাদার এক পুলিশ কর্মকর্তা তাকে সহায়তা করেছেন বলে তথ্য পাওয়া গেছে।

এদিকে পুলিশ পরিদর্শক মামুন ইমরান খান হত্যা মামলার চার্জশিট দেওয়া হলেও মামলাটি পুনর্তদন্তের জন্য আবেদন করা হবে বলেও জানিয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) মনজুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত ডকুমেন্টস এর ভিত্তিতে ইন্টারপোল এরই মধ্যে দুবাইয়ের স্বর্ণ ব্যবসায়ী আরাভ খানের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ জারি করেছে। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোল এবং দুবাই পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করে এনসিবি শাখা কাজ করছে।’