• বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে

জ্বালাও-পোড়াও শুরু করেছে বিএনপি: আনোয়ার খান

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  

২০১৪ সালের মতো বিএনপি আবারো জ্বালাও-পোড়াও শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. আনোয়ার হোসেন খান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রামগঞ্জ পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে উপজেলা ও পৌর যুবলীগের আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

আওয়ামী লীগ সন্ত্রায় নয়, শান্তি চায় দাবি করে আনোয়ার হোসেন খান বলেন, ২০১৪ সালে বিএনপি যেভাবে জ্বালা-পোড়াও করেছে, ঠিক একইভাবে তারা আবারও জ্বালা-পোড়াও শুরু করেছে। আমাদের রামগঞ্জ আওয়ামী লীগের অফিস ভেঙেছে এবং নেতাকর্মীদের ওপরে হামলা চালিয়েছে। কারণ রামগঞ্জে বিএনপির কোনো ভোট নেই।

রামগঞ্জে ধানের শীষের প্রার্থী শাহাদাৎ হোসেন সেলিমকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনাকে রামগঞ্জের বিএনপির নেতাকর্মীরা প্রত্যাখান করেছেন। তাই আপনি আর বাইরে বের হবেন না। ঘরের ভিতরে এবং টেলিভিশনে বক্তব্য দেন।

আনোয়ার খান বলেন, আমরা তৃতীয়বারের মত শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় নিয়ে যেতে চাই। কারণ তিনিই বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ বানিয়েছেন।

স্থানীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাষ্ট্র ক্ষমতায় যেতে ১৫১ টি আসন প্রয়োজন হয়। এই ১৫১টি আসনের সঙ্গে আমরা প্রধানমন্ত্রীকে রামগঞ্জের আসনটি উপহার দিতে চাই।

রামগঞ্জবাসীর উদ্দেশে আনোয়ার খান বলেন, আওয়ামী লীগ রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসলে রামগঞ্জ হবে মডেল উপজেলা। উন্নত শিক্ষা, চিকিৎসা ও রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন হবে এবং বেকারত্ব দূর হবে।

এর আগে, লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল। তাদেরকে এলাকায় প্রবেশ করতে দেবেন না। যদি তারা এলাকায় প্রবেশ করে তাহলে সাথে সাথে তাদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দেবেন। কারণ আমরা কোন বিশৃঙ্খলা সহ্য করবো না। আর ২০১৪ ও ১৫ সালের মতো তাণ্ডব বিএনপিকে আর করতে দেওয়া হবে না। রামগঞ্জে নৌকায় বিজয় সুনিশ্চিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

লক্ষ্মীপুর জেলা যুব লীগের সভাপতি সালাহ্ উদ্দিন টিপু বলেন, বিএনপি রামগঞ্জ আওয়ামী লীগ অফিস পুড়িয়ে দিয়েছে। তাদের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে। কারণ তাদের কোনো ভোট নেই।

লক্ষ্মীপুর জেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ একত্রিত হয়েছি, রামগঞ্জে রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন খানকে নির্বাচিত করবই।

রামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক সৈকত মাহমুদ শামসুর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া সুমন ও পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাখাওয়াত হোসেন রাজুর সঞ্চালনায় সভায় সাবেক রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মুনির হোসেন চৌধুরী, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র বেলাল আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দেওয়ান বাচ্চু, পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক ও প্যানেল মেয়র মামুনুর রশীদ আকন্দ, পৌর ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলয় আহসান হাবিব, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক সোহেল রানা, যুগ্ম আহ্বায়ক আলী মর্তজ্জা বাবু, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুল হাসান ফয়সাল মাল, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান শুভ, পৌর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মিলন আটিয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক অপু মাল, আশরাফ রাজু, ফজলে রাব্বী জয়সহ ১০ ইউনিয়ন আওয়ামী-যুবলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ও পৌর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি- সাধারণ সম্পাদকসহ যুবলীগের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।