• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ কেউ হতাশ হবেন না: প্রধানমন্ত্রী ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির আহতদের চিকিৎসায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নের জন্য কার্যকর জনসংখ্যা ব্যবস্থাপনা চান প্রধানমন্ত্রী বিএনপি ক্ষমতায় এসে সব কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয় চমক রেখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার তিন গুরুত্বপূর্ণ সফর: প্রস্তুতি নিচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ এআইকে স্বাগত জানায় তবে অপব্যবহার রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে ছেলেরা কেন কিশোর গ্যাংয়ে জড়াচ্ছে কারণ খুঁজে বের করার নির্দেশ প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন নতুন প্রজন্ম গড়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার যত ছাত্রীদের চেয়ে ছাত্ররা পিছিয়ে, কারণ খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসির ফল হস্তান্তর জলাধার ঠিক রেখে স্থাপনা নির্মাণে প্রকৌশলীদের আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

বিসিসি নির্বাচনের মাঠ প্রচার-প্রচারণায় সরব হয়ে উঠেছে

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২ মে ২০২৩  

বরিশাল প্রতিনিধিঃ বরিশাল সিটি করপোরেশন (বিসিসি) নির্বাচনের মাঠ প্রচার-প্রচারণায়  সরব হয়ে উঠেছে। মনোনয়নপত্র দাখিল, বাছাই ও প্রতীক বরাদ্দের আগেই বিশেষ করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির (জাপা) শিবিরে নির্বাচনী আমেজ বইতে শুরু করেছে।

এ দুই দলের মনোনীত প্রার্থীরা এরইমধ্যে নির্বাচনী প্রধান কার্যালয় প্রস্তুত করে ফেলেছেন। পাশাপাশি তারা স্থানীয় বিভিন্ন সভা ও অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে নিজের পক্ষে ভোট চেয়ে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন।

যদিও অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্তে সিটি নির্বাচন নিয়ে স্থানীয় বিএনপির শিবিরে কোনো ধরনের প্রভাব পড়েনি। সেই সঙ্গে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে নিঃশ্চুপ রয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। আর তফসিল ঘোষণার পর দলীয় ব্যানারের বাইরে যারা নির্বাচন করার কথা বলেছিলেন তারাও বর্তমানে চুপচাপ রয়েছেন।

জাপা মনোনীত প্রার্থী প্রকৌশলী ইকবাল হোসেন তাপস এরই মধ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে কর্মীসভা ও নগরির বেশ কয়েকটি এলাকায় উঠান বৈঠক করেছেন। এসব সভা ও বৈঠকে তিনি বলছেন, সিটি মেয়র হতে পারলে বরিশালকে একটি উৎপাদনমুখী তিলোত্তমা নগরী হিসেবে গড়ে তুলবেন।

অপরদিকে বর্তমান মেয়রকে হটিয়ে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী হয়ে বেশি আলোচনায় থাকা আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ (খোকন সেরনিয়াবাত) বলছেন, নগরবাসী তাকে এরইমধ্যে যেভাবে গ্রহণ করেছে তাতে বিজয় নিয়ে তিনি শতভাগ আশাবাদী। আর নির্বাচিত হতে পারলে বরিশালকে তিনিও তিলোত্তমা শহরে রূপ দেবেন।

আওয়ামী লীগের এই প্রার্থী দলীয় মনোনয়ন পেয়ে বরিশালে আসার পর প্রতিদিনই নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করছেন। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি নগর ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদকসহ প্রভাবশালী অনেক নেতার নাম বাদ দিয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটিও গঠন করে ফেলেছেন। যদিও নির্বাচন কমিশনের বিধি নিষেধের কারণে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দলীয় নেতা কর্মীদের প্রতি শহরে নির্মাণ করা তোরণ, টাঙানো ব্যানার-ফেস্টুন অপসারনের অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, নির্বাচন আনকনটেস্টেড হলে এতে নির্বাচনের কোনো স্বাদ পাওয়া যায় না। কাজেই নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হোক, প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ খেলা উপভোগ করুক বরিশালের মানুষ। আর সেই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ খেলায় নৌকার প্রার্থী বিজয়ী হবে এমন আশাবাদী আমরা।