• মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৭ মুহররম ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
জাতির পিতার মৃত্যু নেই শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে পীরগঞ্জে তাণ্ডবের মামলায় ৫১ আসামির আত্মসমর্পণ বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি ফজিলাতুন নেছা মুজিব দৃঢ়চেতা-বলিষ্ঠ চরিত্রের অধিকারী ছিলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ বাংলাদেশে সহায়তা অব্যাহত রাখবে চীন: ওয়াং ই চীনে ৯৯ শতাংশ পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে বাংলাদেশ মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি শেখ কামাল ছিলেন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী: প্রধানমন্ত্রী শেখ কামাল ছিলেন ক্রীড়া ও সংস্কৃতিমনা সুকুমার মনোবৃত্তির মানুষ

মালদ্বীপে খুললো ৯২৭ পর্যটন কেন্দ্র

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৩ জানুয়ারি ২০২২  

পৃথিবীর অন্যতম সৌন্দর্যমন্ডিত দেশ ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপ। মনোরম পরিবেশ আদিম সমুদ্র সৈকত দেশটির প্রধান আকর্ষণ। যেখানে পানির রং নীল আর বালির রং সাদা।

১২০০ ছোট দ্বীপ নিয়ে মালদ্বীপ গঠিত। এর মধ্যে ২০০টি দ্বীপ ব্যবহারযোগ্য। এতে রয়েছে ২৬টি অ্যাটোল। মালদ্বীপ বিশ্বের সবচেয়ে নিচু দেশ। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এর গড় উচ্চতা মাত্র এক দশমিক পাঁচ মিটার। বিষুবরেখার কাছে অবস্থিত হওয়ায় এখানে মাত্র একটি ঋতু আছে। সারা বছরের গড় তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

প্রাচীনকাল থেকেই সামুদ্রিক মাছ হচ্ছে দেশটির অর্থনীতির মূলভিত্তি। টুনা মাছের জন্যও বিখ্যাত দেশটি। তবে বর্তমানে মালদ্বীপের বড় শিল্প হলো পর্যটন। বৈদেশিক আয়ের ৭০ শতাংশই আসে এ খাত থেকে।

মালদ্বীপে সর্বমোট ১ হাজার ১৪০টি রিসোর্ট হোটেল গেস্টহাউস পর্যটকদের জন্য চালু ছিলো করোনার আগে। গত দুই সপ্তাহে মালদ্বীপজুড়ে যে পর্যটন কেন্দ্রগুলো আবার চালু হয়েছে সেগুলো হলো ১ লাইভবোর্ড এবং ১০টি গেস্টহাউস।

নতুন ১১টিসহ বেড়ে ৯২৭ এ দাঁড়িয়েছে, যার মধ্যে ১৬১টি রিসোর্ট, ৬১১টি গেস্টহাউস, ১০টি হোটেল এবং ১৪৫টি লাইভবোর্ড রয়েছে। মালদ্বীপে সর্বমোট ১ হাজার ১৪০টি রিসোর্ট হোটেল গেস্টহাউস পর্যটকদের জন্য চালু ছিল করোনার আগে।

মালদ্বীপের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থার (এইচপিএ) একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যেসব পর্যটক কোভিড-১৯ টিকা সম্পূর্ণ করেননি তাদের আবাসিক দ্বীপের গেস্টহাউসগুলিতে রুম বুকিং করতে দেওয়া হবে। শুধুমাত্র যারা ভ্যাকসিনের উভয় ডোজ সম্পূর্ণ করার পরে ১৪ দিন অতিক্রম করেছে তারা স্থানীয় গেস্টহাউস ব্যবহার করতে পারবেন।

করোনার জন্য মালদ্বীপের রিসোর্ট হোটেল রেস্টহাউজ বন্ধ হওয়ার প্রায় চার মাস পর ১৫ জুলাই সীমিত পরিসরে খুলেছিল এবং প্রথমে রিসোর্ট ও লাইভবোর্ড জাহাজগুলোকে কাজ শুরু করার জন্য সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছিল।

এদিকে মালদ্বীপে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৬১ জন। এর মধ্যে মালে ৪০ জন ও রাজধানীর বাইরে আইল্যান্ডগুলোতে ৪১ জন, বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে ৮০ জন।

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মালদ্বীপে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯৬ হাজার ৫২ জন। রোববার (২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মালদ্বীপের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থা, নিয়মিত সংবাদ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।