রোববার   ২০ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৪ ১৪২৬   ২০ সফর ১৪৪১

বার্মিংহামের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন শিল্পমন্ত্রী

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত : ০২:৪৭ পিএম, ৯ অক্টোবর ২০১৯ বুধবার

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে অনুষ্ঠেয় ‘তৃতীয় বিট্রিশ বাংলাদেশি বিজনেস অ্যাওয়ার্ড-২০১৯’ বিতরণ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ঢাকা ছেড়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

বুধবার (৯ অক্টোবর) শিল্পমন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, আগামী বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বার্মিংহামের হকলে সার্কাস রোডে অবস্থিত বিংলে হলে ‘তৃতীয় বিট্রিশ বাংলাদেশি বিজনেস অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ বিতরণ অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ করা হবে। এই অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেবেন।

অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের সাম্প্রতিক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতির বিবরণ তুলে ধরবেন। তিনি দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন, গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন, সড়ক, রেল ও নৌ যোগাযোগ অবকাঠামোর উন্নয়নসহ বিনিয়োগ সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার গৃহিত বিভিন্ন পদক্ষেপ সম্পর্কে আলোকপাত করবেন। এছাড়া শিল্পমন্ত্রী ১১ অক্টোবর লন্ডনে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের চ্যান্সেরি ভবনে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্পর্কিত সংলাপে অংশ নেবেন। এ সংলাপের ফলে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগের ক্ষেত্র প্রসারিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। শিল্পমন্ত্রী ১৩ অক্টোবর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিট্রিশ বাংলাদেশিদের সংগঠন দেশ ফাউন্ডেশন ইউকেএ অনুষ্ঠান আয়োজন করছে। এতে যুক্তরাজ্য, ইউরোপ ও বাংলাদেশের বরেণ্য উদ্যোক্তা, ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, কূটনীতিক, ব্যবসায়ী নেতা, মিডিয়া ব্যক্তিত্বসহ সহস্রাধিক প্রতিনিধি উপস্থিত থাকবেন।

যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের বিভিন্ন অর্জন এবং ব্রিটিশ অর্থনীতিতে তাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৫ সালে এ পুরস্কার চালু করা হয়। প্রথমবারের মতো আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন উপস্থিত ছিলেন। এবার তৃতীয়বারের মতো এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। ফলে ব্রিটিশ এবং বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ব্রিটিশ বাংলাদেশিদের অবদান জোরদার হবে। এ অনুষ্ঠান ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছে বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।