শুক্রবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ২০ মুহররম ১৪৪১

প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করায় সমালোচনার শিকার বিএনপির হারুন

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত : ০৩:০৪ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বুধবার

একাদশ জাতীয় সংসদে বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি রুমিন ফারহানার পর এবার সমালোচনার শিকার হয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সাংসদ হারুন অর রশিদ।

সংসদে যোগ দেয়ার পর থেকেই সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করে আসছেন তিনি। এতে এমনিতেই নেতাদের বিব্রত বোধের কারণ হয়ে দাঁড়িছিলেন তিনি। এবার তার নিজের খোঁজ নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

সোমবার বিকালে সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে একটি সম্পূরক প্রশ্ন করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি নিজের কৃতজ্ঞতা জানান বিএনপির এই সাংসদ। এর পরেই তাকে নিয়ে শুরু হয় তীব্র সমালোচনা।

হারুন বলেন, “সম্প্রতি ঢাকা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ ট্রেন চালু হয়েছে। এটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই অনুষ্ঠানে আমাকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়। কিন্তু ওই অনুষ্ঠানে আমি থাকতে পারিনি। প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, হারুন কোথায়? এজন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানায়।”

এমন প্রেক্ষাপটে বিএনপি নেতারা বলছেন, “বেশি কিছুদিন হলেই সরকারের প্রতি এমপি হারুনের গঠনমূলক বক্তব্য দলের কোনো নেতাই ভালো চোখে দেখেনি।”

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, “বিএনপি যেখানে সংসদে যোগ দিতেই প্রস্তুতি ছিলো না, কেবল সরকারের সমালোচনা করার উদ্দেশ্যে এমপিদের সংসদে যোগ দিতে মত দেয়া হয়েছে, সেখানে সরকারের প্রশংসা কতটুকু গ্রহণযোগ্য? এমপিদের চলাফেরা, ফ্ল্যাট চাওয়া, সরকারের প্রশংসা করা মোটেই সুবিধার মনে হচ্ছে না। এ বিষয়ে দলীয় ফোরামে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। এমপিদের নিয়ে অচিরেই ঘরোয়া বৈঠকে বসা হবে বলেও জানান তিনি।”

গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সারাদেশে বিএনপির ভয়াবহ বিপর্যয় হলেও ব্যতিক্রম চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসন। এখানে ১৫০ কেন্দ্রের সবগুলোতেই জিতেন বিএনপির প্রার্থী মো. হারুন উর রশিদ। ফলে হারুনের প্রশংসা ও প্রধানমন্ত্রী খোঁজ খবর রাখাকে মোটেই সহজ চোখে দেখছে না বিএনপি নেতারা।