• সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

  • || ০৭ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-বেইজিং ৭ ঘোষণাপত্র, ২১ চুক্তি সই চীনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই উপযুক্ত সময় তিয়েনআনমেন স্কয়ারে চীনা বিপ্লবীদের প্রতি শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা চীন-বাংলাদেশ হাত মেলালে বিশাল কিছু অর্জন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই সময়: চীনা ব্যবসায়ীদের প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী বেইজিং পৌঁছেছেন, শি জিংপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক আজ দ্বিপক্ষীয় সফরে চীনের পথে প্রধানমন্ত্রী

নির্বাচনের পক্ষে সারা দেশে গণজোয়ার বইছে: কাদের

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩  

বাংলাদেশের মানুষ নির্বাচন চায় এবং নির্বাচনের পক্ষে সারা দেশে গণজোয়ার বইছে বলে মন্তব্য করেছেন সেতুমন্ত্রী, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ওবায়দুল কাদের।

আগামী নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনার প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। রোববার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে এ প্রস্তুতি সভার আয়োজন করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটি।

সভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের নির্বাচনী প্রচারণার মূল স্লোগান হবে, ‘নাশকতার কালো হাত ভেঙে দাও, গুঁড়িয়ে দাও। ’ আমাদের চোরাগুপ্ত হামলা প্রতিহত করতে হবে। সারা বাংলাদেশের মানুষ নির্বাচন চায়। নির্বাচনের পক্ষে সারা দেশে গণজোয়ার।  
তিনি বলেন, এ সময়ে চোরাগোপ্তা হামলা হচ্ছে, টেমস নদীর ওপার থেকে স্কাইপে অবৈধ বক্তব্যও দেওয়া হচ্ছে। এসব নিয়ে হঠাৎ হঠাৎ গুহা থেকে বের হয় একটা প্যাথলজিক্যাল লায়ার। এসেই যা খুশি বলে-  ‘সরকার পতন সময়ের ব্যাপার। ’ এ করতে করতে ২৮ তারিখ চলে গেছে। এখন অপেক্ষা করতে হবে আগামী বছরের ২৮ তারিখের জন্য।

নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার হিসেবে যে সরকার আছে, সে সরকারই থেকে যাবে। গতবারও এমনটিই হয়েছে। তবে এখানে টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী থাকতে পারবেন না, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টারা থাকতে পারবেন না। এ পদবীগুলোতে যারা আছেন, তারা অটোমেটিক বাদ হয়ে যাবেন।

রওশন এরশাদের নির্বাচন পেছানোর আহ্বানের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, রওশন এরশাদকে বলুন নির্বাচন কমিশনারের কাছে আবেদন করতে, এটা আমাদের এখতিয়ার বহির্ভূত।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের বেশি টার্গেট যারা এবার প্রথমবার ভোট দিবেন। আর নির্বাচনের প্রচার হবে সেই ভাষায়, সাধারণ মানুষ যে ভাষা বুঝবে, সে ভাষা প্রয়োগ করতে হবে। যত অল্প কথা সম্ভব। প্রচার-প্রচারণার জন্য সময় একেবারেই কম। যাদের যে দায়িত্ব দিলে কাজ হবে, তাদের সে কাজ দিতে হবে।

সভায় তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, এমন একটি সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে, যখন একটি শ্রেণী বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে প্রতিদিন গাড়ি পোড়াচ্ছে, নির্বাচন নিয়ে ধুম্রজাল তৈরি করার চেষ্টা করছে। তবে সব ছাপিয়ে মানুষের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে এবং একটি নির্বাচনী আমেজ তৈরি হয়েছে।

সন্ধ্যার এ সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির আহ্বায়ক ড. কামাল আবু নাসের চৌধুরী। এ সময় দলের অন্যান্য নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।