• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর লক্ষ্য হচ্ছে দক্ষ জনশক্তি গড়া: মন্ত্রী ইমরান

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

প্রধানমন্ত্রীর লক্ষ্য হচ্ছে দক্ষ জনশক্তি গড়া বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ। তিনি বলেছেন, জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিতে দক্ষ জনবল তৈরির পাশাপাশি কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দেশের বেকার তরুণ-তরুণীদের আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ ও উদ্যোক্তা তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।
তারই ধারাবাহিকতায় দেশের অন্যান্য জেলা ও উপজেলার ন্যায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের কোল ঘেঁষে গৌরনদী পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ডের বড় কসবা গ্রামের দেড় একর জমির ওপর ৩৭ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে গৌরনদী কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্র।

‘থাকবো ভালো, রাখবো ভালো দেশ, বৈধপথে প্রবাসী আয়-গড়বো বাংলাদেশ’ স্লোগানকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে গৌরনদী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, এখান থেকে ছয়টি ট্রেডে কারিগরি প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। আমাদের বেকার ছেলে-মেয়েরা এখান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে দক্ষ শ্রমিক হিসেবে দেশ ও বিদেশে যেমন চাকরির বাজারে নিজেদের যোগ্য করে তুলতে পারবে। তেমনি নিজেরা নিজেদের কর্মসংস্থান তৈরি করতে পারবে।

কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্র মাঠে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক অতিরিক্ত সচিব এনডিসি মো. শহীদুল আলম সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ‘দক্ষ হয়ে বিদেশ গেলে, অর্থ, সম্মান দুই মেলে’। বিদেশে যেতে গেলে দক্ষ হয়ে যেতে হবে, আর দক্ষ হতে হলে প্রশিক্ষণ নিতে হবে। দক্ষ মানুষ সারা বিশ্বের মানুষের উপকারে আসে। তাই কারিগরি শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা অনুধাবন করে জনবান্ধব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীনে জনশক্তি কর্মসংস্থান ব্যুরো দেশের ৪০টি উপজেলায় একটি করে কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্র ও চট্টগ্রামে একটি ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি স্থাপন শীর্ষক প্রকল্প নিয়েছে।

এসব প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে বহির্বিশ্বের শ্রমবাজারে দক্ষ শ্রমশক্তি রপ্তানির করে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। পাশাপাশি দেশের জনগণ নিজ নিজ এলাকায় থেকে কারিগরি প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে নিজেদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে পারবেন। ফলে গৌরনদী উপজেলাবাসীর আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটবে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, দারিদ্র্য বিমোচন, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও উৎপাদনশীলতা বাড়াতে কারিগরি শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম।

বিশ্ববাজারে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত মানবসম্পদের চাহিদা রয়েছে। সে লক্ষ্যেই বর্তমান সরকার দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণের মহতি উদ্যোগ নিয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় গৌরনদীতে নির্মিত হয়েছে এ কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বরিশালের জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম, যুগ্ম সচিব এবং টিটিসির প্রকল্প পরিচালক সাইফুল হক চৌধুরী, বরিশালের জেলা পুলিশ সুপার মো. ওয়াহিদুল ইসলাম, গৌরনদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দা মনিরুন নাহার মেরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবু আব্দুল্লাহ খান, ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ হোসেন মুন্সী, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলু প্রমুখ।

সভার শুরুতে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে গৌরনদী কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্রের উদ্বোধণ করেন। পরে নামফলক উন্মোচন শেষে প্রশিক্ষণকেন্দ্রের চত্বরে বিভিন্ন জাতের গাছের চারা রোপণ করা হয়।