• সোমবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১০ ১৪২৯

  • || ২৮ সফর ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচারের সমুচিত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী ‘জাতিসংঘ অধিবেশনে সক্রিয় অংশগ্রহণ বাংলাদেশের অবস্থান আরও সুদৃঢ় করেছে’ জাতিসংঘে আজ বাংলায় ভাষণ দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু আজ বাংলাদেশি অভিবাসী দিবস জলবায়ু ইস্যুতে ধনী দেশগুলোর অবদান ‘দুঃখজনক’: প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ সব সময় জনগণের ভোটেই ক্ষমতায় আসে: প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ বিশ্বশান্তি ও মানবমুক্তির দিকদর্শন: আ.লীগ জাতিসংঘে ১৫ আগস্টের কথা স্মরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী বাণিজ্য সহযোগিতা জোরদারে ঢাকা-নমপেন এফটিএ চুক্তিতে সম্মত দেশে বিনিয়োগ বাড়াতে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য নতুন অর্থনৈতিক অঞ্চল বাইডেনের অভ্যর্থনায় প্রধানমন্ত্রীর যোগদান রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে জাতিসংঘকে কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান যুদ্ধ বন্ধ করে শান্তি প্রতিষ্ঠা করুন: প্রধানমন্ত্রী বাইডেনকে বাংলাদেশে আসার আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন : জাতিসংঘের বলিষ্ঠ ভূমিকা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী চলমান বৈশ্বিক সংকট নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বেগ জাতিসংঘে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর আলোকচিত্র প্রদর্শন সাফজয়ী ফুটবলার রূপনা চাকমার জন্য রাঙ্গামাটিতে ঘর নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর নিষেধাজ্ঞা-পাল্টা নিষেধাজ্ঞা বিশ্বজুড়ে গভীরভাবে আঘাত করছে: প্রধানমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা, শিক্ষক নেতাকে এক বছরের কারাদণ্ড

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১০ আগস্ট ২০২২  

বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে তাঁকে অবমাননার মামলায় এক প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক নেতাকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। সোমবার,৮ আগস্ট  বরিশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শামিম আহমেদ এই রায় ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী আব্দুর রহমান। তি‌নি বলেন, আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করা হয় এবং আপিল শর্তে ১৫ দিনের অন্তবর্তীকালিন জামিন দেওয়া প্রদান করে আদালত।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামী শফিকুল ইসলাম বরিশাল সদর উপজেলার কাগাশুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি বরিশাল জেলা কমিটির সভাপতি।

মামলার বিবাদী কাগাশুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য আব্দুল বারেক ২০১৯ সালে কাউনিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৭ মার্চ প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন পালনের জন্য অনুরোধ জানায় বাদী। কিন্তু প্রধান শিক্ষক স্কুলে জন্মদিন পালনে প্রথমে অনীহা প্রকাশ করে। পরবর্তীতে প্রধান শিক্ষক বাদী ও স্কুলের অন্যান্য শিক্ষক এবং ছাত্রদের চাপে জাতির জনকের জন্মদিন পালন করতে রাজি হয়।

এরপর ১৭ মার্চ সকাল ১১ টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে স্কুলের এক‌টি কক্ষে স্কুলের সহকারী শিক্ষকদের সাথে প্রধান শিক্ষক শ্রদ্ধা জানান। এসময় প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম তাচ্ছিল্যতার সাথে বাম হাত দিয়ে একটি ফুল বঙ্গবন্ধুর ছবির মুখের সামনে ধরেন।  

এসময় উপস্থিত লোকজন এর প্রতিবাদ জানায়। এরপর প্রধান শিক্ষক ক্ষুব্ধ হয়ে স্কুলের ছাত্র ও অভিভাবকদের স্কুল থেকে বের করে দেয়। প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম ইচ্ছাকৃতভাবেই বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে সুনাম ও খ্যাতি নষ্ট করার অসৎ উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধুর ছবিতে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে বাম হাত ব্যবহার করেছেন। এ‌তে ওই এলাকার জনগন সহ গোটা জাতির মান সম্মান হানি হয়েছে।

বাদী বিবাদির বিষয়ে জানতে পারে বিবাদী অর্থাৎ শফিকুল ইসলাম মনে প্রানে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জামায়াতের একজন সদস্য৷ বিবাদী বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধুকে জাতির জনক হিসেবে বিশ্বাস করে না।
বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করার ঘটনায় প্রধান শিক্ষককে জনসাধারনের সামনে ক্ষমা চাইতে বলা হলে তিনি রাজি হননি এমনকি তার মাঝে কোন অনুশোচনা দেখা যায়নি।

এই ঘটনায় ২০১৯ সালের ৩ ডিসেম্বর মামলা দায়ের করেন ঐ স্কুলের অভিভাবক সদস্য আব্দুল বারেক।সাত জ‌নের সাক্ষ‌্য গ্রহণ শে‌ষে আদালত এই রায় ঘোষনা ক‌রেন।