• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ রজব ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে প্রধানমন্ত্রীকে বরণে প্রস্তুত রাজশাহী প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় রাজশাহীবাসী, ব্যাপক জনসমাগমের প্রস্তুতি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের মূল চাবিকাঠি ডিজিটাল সংযোগ সাধারণ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী আপনি কি আল্লাহর ফেরেস্তা, ফখরুলকে কাদেরের প্রশ্ন কাউকে সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেব না: প্রধানমন্ত্রী আর্থসামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল: প্রধানমন্ত্রী বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে কাস্টমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে একাত্তরে গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমার ব্যর্থতা থাকলে খুঁজে বের করে দিন: প্রধানমন্ত্রী পরবর্তী লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিটি শিক্ষার্থী যেন স্কাউট প্রশিক্ষণ পায়: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত, সন্ত্রাস ও ক্ষমতা দখলকে পেছনে ফেলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে মাইকেল মধুসূদন দত্ত বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র

বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা, শিক্ষক নেতাকে এক বছরের কারাদণ্ড

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১০ আগস্ট ২০২২  

বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে তাঁকে অবমাননার মামলায় এক প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক নেতাকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। সোমবার,৮ আগস্ট  বরিশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শামিম আহমেদ এই রায় ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী আব্দুর রহমান। তি‌নি বলেন, আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করা হয় এবং আপিল শর্তে ১৫ দিনের অন্তবর্তীকালিন জামিন দেওয়া প্রদান করে আদালত।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামী শফিকুল ইসলাম বরিশাল সদর উপজেলার কাগাশুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি বরিশাল জেলা কমিটির সভাপতি।

মামলার বিবাদী কাগাশুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য আব্দুল বারেক ২০১৯ সালে কাউনিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৭ মার্চ প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন পালনের জন্য অনুরোধ জানায় বাদী। কিন্তু প্রধান শিক্ষক স্কুলে জন্মদিন পালনে প্রথমে অনীহা প্রকাশ করে। পরবর্তীতে প্রধান শিক্ষক বাদী ও স্কুলের অন্যান্য শিক্ষক এবং ছাত্রদের চাপে জাতির জনকের জন্মদিন পালন করতে রাজি হয়।

এরপর ১৭ মার্চ সকাল ১১ টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে স্কুলের এক‌টি কক্ষে স্কুলের সহকারী শিক্ষকদের সাথে প্রধান শিক্ষক শ্রদ্ধা জানান। এসময় প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম তাচ্ছিল্যতার সাথে বাম হাত দিয়ে একটি ফুল বঙ্গবন্ধুর ছবির মুখের সামনে ধরেন।  

এসময় উপস্থিত লোকজন এর প্রতিবাদ জানায়। এরপর প্রধান শিক্ষক ক্ষুব্ধ হয়ে স্কুলের ছাত্র ও অভিভাবকদের স্কুল থেকে বের করে দেয়। প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম ইচ্ছাকৃতভাবেই বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে সুনাম ও খ্যাতি নষ্ট করার অসৎ উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধুর ছবিতে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে বাম হাত ব্যবহার করেছেন। এ‌তে ওই এলাকার জনগন সহ গোটা জাতির মান সম্মান হানি হয়েছে।

বাদী বিবাদির বিষয়ে জানতে পারে বিবাদী অর্থাৎ শফিকুল ইসলাম মনে প্রানে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জামায়াতের একজন সদস্য৷ বিবাদী বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধুকে জাতির জনক হিসেবে বিশ্বাস করে না।
বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করার ঘটনায় প্রধান শিক্ষককে জনসাধারনের সামনে ক্ষমা চাইতে বলা হলে তিনি রাজি হননি এমনকি তার মাঝে কোন অনুশোচনা দেখা যায়নি।

এই ঘটনায় ২০১৯ সালের ৩ ডিসেম্বর মামলা দায়ের করেন ঐ স্কুলের অভিভাবক সদস্য আব্দুল বারেক।সাত জ‌নের সাক্ষ‌্য গ্রহণ শে‌ষে আদালত এই রায় ঘোষনা ক‌রেন।