• বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ২০ ১৪২৮

  • || ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দোকানপাট খুলবে ১১ আগস্ট কিছু বেইমান-মুনাফেকের জন্য তার দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গঠন সম্ভব হয়নি নিম্ন আয়ের মানুষও আমাদের প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী মুজিবের দেশে প্রতিটি মানুষ সুন্দর ও উন্নত জীবন পাবে জাতিসংঘের ৭৬তম অধিবেশনে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী বস্তিবাসীদের আধুনিক ফ্ল্যাট দিলেন প্রধানমন্ত্রী ‘বঙ্গবন্ধু হত্যায় ষড়যন্ত্রকারী কারা, ঠিকই আবিষ্কার হবে’ ‘বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পৃষ্ঠপোষকতায় এগিয়ে খালেদা জিয়া’ দেশের নাম বদলে দিতে চেয়েছিল পঁচাত্তরের খুনি চক্র: প্রধানমন্ত্রী এক সময় নিজেই রক্তদান করতাম: প্রধানমন্ত্রী হত্যার বিচার করেছি, ষড়যন্ত্রের পেছনে কারা এখনও আবিষ্কার হয়নি শোকের মাস আগস্ট শুরু একনেক বৈঠক শুরু, অনুমোদন হতে পারে ১০ প্রকল্প করোনা টেস্টে গ্রামীণ জনগণের ভীতি নিরসনে কাজ করতে হবে জয়ের কাছ থেকেই আমি কম্পিউটার শিখেছি : প্রধানমন্ত্রী মানুষকে ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদন হবে দেশেই: শেখ হাসিনা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন আজ করোনা মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীসহ সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক

ইউএনওর হস্তক্ষেপে শিকল থেকে মুক্ত হয়ে হাসপাতালে মোহাম্মদ উল্লাহ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২০  

দুই বছর শিকল বন্দি থাকা মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তির চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বকুল চন্দ্র কবিরাজ।

মানসিক ভারসাম্যহীন ওই ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ উল্লাহ।

হিজলা উপজেলার গুয়াবাড়িয়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অহিদুল আলম তালুকদার ছেলে মোহাম্মদ।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে স্থানীয়রা জানান, উচ্চ শিক্ষিত ও কয়েকবার বিদেশ ভ্রমণ করা মোহাম্মদ উল্লাহ গত দুই বছর ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ঘরের মধ্যে শিকলবন্দি অবস্থায় ছিলেন। দিনের পর দিন অনাহারে, অর্ধাহারে তার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ার উপক্রম হচ্ছিলো।  

বিষয়টি হিজলা উপজেলা নির্বাহী ইউএনওর দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর মানসিক ভারসাম্যহীন মোহাম্মদ উল্লাহর চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে আসেন ওই ইউএনও বকুল চন্দ্র কবিরাজ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বকুল চন্দ্র কবিরাজ জানান, উপজেলা প্রশাসন, থানা ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় বিষয়টি জানার পর গত ২২ নভেম্বর অ্যাম্বুলেন্সে করে পাবনা মানসিক হাসপাতালে পাঠানো হয় মোহাম্মদকে। পরবর্তীতে পাবনা উপজেলা ইউএনও সঙ্গে যোগাযোগ করে মোহাম্মদকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে মোহাম্মদ উল্লাহ স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে আসবে বলেও ইউএনও আশা প্রকাশ করেন।

অপরদিকে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে আসার জন্য উপজেলা ইউএনও বকুল চন্দ্র কবিরাজের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ওই ব্যক্তির স্বজনসহ স্থানীয়রা।