• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

ইসরায়েল-হামাসকে যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত করল জাতিসংঘ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০২৪  

জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের নতুন এক প্রতিবেদনে ইসরায়েল ও হামাসকে যুদ্ধাপরাধ ঘটানো এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে। খবর বিবিসির।

প্রতিবেদনে জাতিসংঘের তদন্ত কমিশনের তদন্তকারীরা তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন। বেসামরিকদের ওপর হামলা এবং খুন বা ইচ্ছাকৃত হত্যার জন্য যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে উভয়পক্ষকেই।

প্রতিবেদনে ২০২৩ সালের শেষ সময় পর্যন্ত তথ্য উঠে এসেছে। নির্যাতন, নির্মূল এবং ফিলিস্তিনি পুরুষ ও ছেলেদের লক্ষ্য করে লিঙ্গ নিপীড়নে ইসরায়েলকে মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে।

ইসরায়েল অবশ্য প্রতিবেদনে আনা অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। দেশটির অভিযোগ, কমিশন তাদের বিরুদ্ধে একটি সংকীর্ণ নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক এজেন্ডা অনুসরণ করছে।

তদন্তকারীদের সংকলন করা প্রতিবেদনটি আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে উপস্থাপন করা হবে। ভুক্তভোগী, সাক্ষী, চিকিৎসা প্রতিবেদন এবং উন্মুক্ত উৎসের তথ্য নিয়ে প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে।  

জাতিসংঘের সাবেক মানবাধিকার প্রধান নাভি পিলের নেতৃত্বাধীন প্যানেল বলছে, জনবহুল এলাকায় ইসরায়েলের ভারী অস্ত্র ব্যবহার যুদ্ধাপরাধ ঘটিয়েছে।  

গাজায় লোকজনকে অনাহারে রাখা, নির্বিচারে আটক এবং হাজার হাজার শিশুকে হত্যা এবং তাদের পঙ্গুত্বের মতো কারণে ইসরায়েলকে যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

অন্যদিকে গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলার সময় ব্যাপক নিপীড়ন চালানোর অভিযোগও তুলেছেন তদন্তকারীরা। ওইদিন হামাসের হামলায় ইসরায়েল এক হাজার ২০০ লোকের প্রাণহানি ঘটে। হামাস ২৫১ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে যায়।  

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েলি নারীদের ওপর যৌন নিপীড়ন এবং সরকারি আশ্রয়কেন্দ্রে এক ধরনের গণহত্যা চালানোর প্রমাণ পাওয়া গেছে।

ফিলিস্তিনিদের প্রকাশ্যে ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য ইসরায়েলি বাহিনীর বিরুদ্ধেও যৌন সহিংসতার অভিযোগ আনা হয়েছে।