• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

নিট রিজার্ভ বাড়াতে তহবিলের আকার কমাচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২৩  

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ করা অর্থ কমিয়ে ফেলছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ইতোমধ্যে রপ্তানি উন্নয়ন তহবিলের (ইডিএফ) আকার ২৪০ কোটি ডলার কমানো হয়েছে। আরও কমানো হবে। অন্যান্য তহবিলে বিনিয়োগ করা অর্থও কমানো হচ্ছে। দেশের বৈদেশিক মুদ্রার নিট রিজার্ভ বাড়াতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সূত্র জানায়, আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিলের (আইএমএফ) শর্ত অনুযায়ী আগামী জুলাই থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক গ্রস রিজার্ভের পাশাপাশি নিট রিজার্ভের তথ্যও প্রকাশ করবে। এখন শুধু গ্রস রিজার্ভের তথ্য প্রকাশ করছে। নিট রিজার্ভের তথ্য প্রকাশ করছে না। বর্তমানে গ্রস রিজার্ভ ২ হাজার ৯৮৮ কোটি ডলার। এর মধ্যে ইডিএফ তহবিলে বিনিয়োগ করা ৭০০ কোটি ডলার, শ্রীলংকাকে ঋণ হিসাবে দেওয়া ২০ কোটি ডলার ও অন্যান্য তহবিলে বরাদ্দ অর্থও রয়েছে। আইএমএফের শর্ত অনুযায়ী বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ করা ডলার রিজার্ভ থেকে বাদ দিতে হবে। এজন্য আইএমএফ প্রায় ৮০০ কোটি ডলার বাদ দিতে শর্ত দিয়েছে।

এরপর কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিভিন্ন তহবিলে বিনিয়োগ করা অর্থের পরিমাণ কমাচ্ছে। এর অংশ হিসারে ইডিএফ তহবিলের আকার ছোট করেছে। ৭০০ কোটি ডলারের তহবিল থেকে ২৪০ কোটি ডলার কমিয়ে ৪৬০ কোটি ডলারে নামিয়েছে। এটি আরও কমানো হবে। আগে এই তহবিল থেকে যারা ঋণ নিয়ে এখন পরিশোধ করছেন তাদেরকে নতুন ঋণ দেওয়া হচ্ছে কম। ফলে এর আকার ছোট হয়ে আসছে। এ তহবিল থেকে রপ্তানিকারকরা বৈদেশিক মুদ্রায় ঋণ নিয়ে কাচামাল আমদানি করতে পারতেন।

এর বিকল্প হিসাবে ১০ হাজার কোটি টাকার একটি তহবিল গঠন করা হয়েছে। ওই তহবিল থেকে রপ্তানিকারকরা ঋণ নিয়ে তা দিয়ে বাজার থেকে ডলার কিনে কাচামাল আমদানি করতে পারবেন। ২০ কোটি ডলার ও ২০ কোটি ইউরোর দুটি তহবিল রয়েছে। এছাড়া শিল্পের যন্ত্রপাতি আমদানি করতে আরও একটি তহবিল রয়েছে। এগুলোর আকার কমানো হচ্ছে। কেননা এসব তহবিলের তেমন কোন চাহিদা নেই। এসব বরাদ্দ কমিয়ে রিজার্ভ থেকে ৪০০ কোটি ডলার বা তার চেয়ে কম অর্থ বাদ দিতে চাচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ফলে নিট রিজার্ভ বাড়বে।