• সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৯

  • || ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল হস্তান্তর ব্যাংক খাতের পরিস্থিতি জানানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশ, পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়া-খালেদা-তারেক খুনি: প্রধানমন্ত্রী জেলা-উপজেলা পর্যায়ে কর্মজীবী মহিলা হোস্টেল হবে: প্রধানমন্ত্রী দুপুরে সচিবদের নিয়ে বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে ডা. মিলনের আত্মত্যাগ নতুন গতি সঞ্চার করে ডা. মিলন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: রাষ্ট্রপতি মিছিল-মিটিংয়ে আপত্তি নেই, মানুষের ওপর হামলায় সহ্য করবো না ‘যারা গ্রেনেড দিয়ে আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে, তাদের সঙ্গে আলোচনা? যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধুর খুনিকে লালন-পালন করছে: প্রধানমন্ত্রী

৩ লাখ অ্যাকাউন্টে ৯৬৫ কোটি টাকা

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২  

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খোলার আগ্রহ বেড়েছে। সরকারি বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণের জন্য প্রতিমাসেই বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও থানায় মুক্তিযোদ্ধাদের নতুন ব্যাংক হিসাব বাড়ছে। বর্তমানে ৩ লাখ ২২ হাজার ব্যাংক হিসাব রয়েছে। আর এ হিসাব গত এক বছরে ৫৪ হাজার বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব ব্যাংক হিসাবে সর্বমোট প্রায় ৯৬৫ কোটি টাকা সঞ্চয় জমা রয়েছে। শুধু তাই নয়, ইতোমধ্যে এসব অ্যাকাউন্টে সঞ্চয় জমা হয়েছে ৯৬৫ লাখ টাকা। আর এর বিপরীতে ৫ হাজার ৩০৬ জন মুক্তিযোদ্ধা ২০৪ কোটি টাকার বেশি ঋণও গ্রহণ করেছেন। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের মুক্তিযোদ্ধাদের ১০ টাকার ব্যাংক হিসাব খোলার উদ্যোগে সরকারের মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, পঙ্গুত্ব ভাতা, বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, দুস্থ অসহায় রোগীদের চিকিৎসা সহায়তাসহ বিভিন্ন ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান ও প্রবাসীদের রেমিট্যান্স আশার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। এছাড়া সঞ্চয় করা ও ঋণ নেয়ার সুবিধা পাচ্ছে তারা।

মুক্তিযোদ্ধাদের ব্যাংক হিসাবের মধ্যে এক লাখ ৪৪ হাজার মুক্তিযোদ্ধা সরকার থেকে ২৭৬ কোটি টাকা ভর্তুকি এবং ভাতা গ্রহণ করেছেন। গত জুন পর্যন্ত ৫ হাজার ৩০৬ জন মুক্তিযোদ্ধা ২০৪ কোটি টাকার বেশি ঋণও প্রহণ করেছে। মুক্তিযোদ্ধাদের এই ব্যাংক হিসাব নম্বরে প্রবাসীরা রেমিট্যান্সও পাঠাচ্ছেন। জুন পর্যন্ত ৩৮৪ জন প্রবাসী চার কোটি টাকার বেশি রেমিট্যান্সও পাঠিয়েছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ফিন্যান্স বিভাগের অধ্যাপক বাকি খলিলি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের মুক্তিযোদ্ধাদের ১০ টাকা হিসাব খোলার উদ্যোগ প্রশংসনীয়। তবে দীর্ঘ দিন মুক্তিযোদ্ধারা আগ্রহ কম দেখিয়েছেন। তবে সরকারের বিভিন্ন সুবিধা ব্যাংক হিসাবে যুক্ত হওয়াতেই তাদের ব্যাংক হিসাব খোলার আগ্রহ বেড়েছে। এর ফলে তৃতীয় কোনো পক্ষ থাকছে না।

তিনি আরও বলেন, আগে মুক্তিযোদ্ধারা সরকারের যে সব সুযোগ-সুবিধা পাওয়ার কথা থাকলেও সেগুলো সঠিকভাবে বণ্টন হতো না। তাদের কাছে পৌঁছাত না। বিশেষ করে গ্রাম অঞ্চলে ভুক্তভোগীর সংখ্যা বেশি ছিল। চেয়ারম্যান, মেম্বাররা তাদের পাওনা নিজেরা খেয়ে ফেলতো। কিন্তু ব্যাংক হিসাব থাকার ফলে সরকার সরাসরি টাকা দিয়ে দিতে পারছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের সমর্থক সরকার। তাদের সম্মানেই ১০ টাকা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ অ্যাকাউন্ট সব জেলায় সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে খোলা যাবে। একই সাথে কম সুদে ঋণেরও ব্যবস্থা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, সরকার তাদের বিভিন্ন ভাতা ব্যাংকের মাধ্যমে দেওয়ায় তারা ব্যাংকে হিসাব খুলেছেন। এ কারণে ব্যাংকে হিসাব খোলা বাড়তে শুরু করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্য অনুযায়ী, গত জুন মাস পর্যন্ত বিভিন্ন ব্যাংকে তিন লাখ ২২ হাজারের বেশি ব্যাংক হিসাব রয়েছে মুক্তিযোদ্ধাদের। এ সব হিসাবে মুক্তিযোদ্ধাদের সঞ্চয়ের পরিমাণ ৯৬৫ কোটি টাকা। এক বছরের ব্যবধানে হিসাব খোলার সংখ্যা বেড়েছে ৫৪ হাজারের বেশি। গত বছরের একই সময়ে মুক্তিযোদ্ধাদের ব্যাংক হিসাবের সংখ্যা ছিল দুই লাখ ৬৮ হাজার।