• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

ইপিজেড পাচ্ছে দক্ষিণাঞ্চল, আসবে দেড়শ কোটি ডলারের বিদেশি বিনিয়োগ!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৬ মে ২০২৪  

পদ্মা সেতু ও পায়রা বন্দরকে কেন্দ্র করে দক্ষিণাঞ্চলে প্রথমবারের মতো গড়ে তোলা হচ্ছে রফতানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা (ইপিজেড)। প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে সম্পূর্ণ দেশীয় অর্থায়নে। এ ইপিজেডে লক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি দেড় হাজার মিলিয়ন বা দেড়শ’ কোটি ডলার বৈদেশিক বিনিয়োগ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

দক্ষিণাঞ্চলের বরিশালে এই প্রথম নির্মাণ করা হচ্ছে ইপিজেড। ৪১০ একর জমির ওপর গড়ে উঠবে ৩০৬টি শিল্প প্লট। পদ্মা সেতু এবং পায়রা সমুদ্র বন্দরকে কেন্দ্র করে দেশের দ্বিতীয় বৃহৎ এ ইপিজেড প্রকল্প হাতে নেয় সরকার।

শেষ হয়েছে প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণ। এরই মধ্যে পুরো জমি বাংলাদেশ রফতানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) কাছে হস্তান্তরও করা হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে শুরু হবে নির্মাণ কাজ।

পটুয়াখালীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. ওবায়দুর রহমান জানান, অধিগ্রহণ করা জমি বেপজার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। শিগগিরই নির্মাণ কাজ শুরু হবে। নির্মাণ শেষ হলে কর্মসংস্থানে আশেপাশের মানুষকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

পটুয়াখালী ইপিজেডের প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ইপিজেড পূর্ণাঙ্গ চালু হলে এখানে প্রায় এক হাজার ৫৩০ মিলিয়ন ডলার বৈদেশিক বিনিয়োগ এবং প্রতি বছর এক হাজার ৮৬০ মিলিয়ন ডলার আয় হবে। আর সরাসরি কর্মসংস্থান তৈরি হবে এক লাখ মানুষের। এছাড়াও দুই লাখ মানুষের পরোক্ষ কর্মসংস্থান হবে।

তিনি আরও জানান, ২০২৩ সালের ২৯ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়। ২০২৬ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি শেষ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
 
পায়রা বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল আব্দুল্লাহ আল মামুন চৌধুরী জানান, এখানে পণ্য উৎপাদনের পর পায়রা বন্দর ব্যবহার করে দ্রুত রফতানি করার সুযোগ থাকায় পটুয়াখালী ইপিজেডের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ বেশি। আর ইপিজেডকে কেন্দ্র করে আমদানি-রফতানি বাড়বে পায়রা সমুদ্র বন্দরে।

এদিকে, ইপিজেড নির্মাণে স্থানীয়রা খুশি হলেও জমি অধিগ্রহণে মৌজা দর কম নির্ধারণ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জমি মালিকরা। তারা বলছেন, জমির বর্তমান দামের চেয়ে অনেক কম দেয়া হচ্ছে।

ঢাকা-কুয়াকাটা মহাসড়কের পাশে পটুয়াখালী সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নে হচ্ছে এ ইপিজেড। এছাড়াও একই প্রকল্পের আওতায় কুয়াকাটায় ২.২৫ একর জমির ওপর স্থাপিত হচ্ছে ইনভেস্টরস ক্লাব।

সম্পূর্ণ দেশীয় অর্থায়নে গৃহীত এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে বেপজা। এর খরচ ধরা হয়েছে ১ হাজার ৪৪৩ কোটি টাকা। প্রকল্পটিতে বেপজার নিজস্ব তহবিল থেকে প্রায় ৩৩৮ কোটি টাকা এবং বাকি ১ হাজার ১০৫ কোটি টাকার যোগান দেয়া হবে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে।

প্রকল্পের আওতায় যা যা নির্মাণ হবে

প্রকল্পের আওতায় রাস্তা, ড্রেন, ৪টি ৬তলা কারখানা ভবন, ৩টি ১০তলা আবাসিক ভবন, একটি ৬তলা ও ২টি ৩তলা অফিস ভবন এবং ২টি অন্যান্য ভবন নির্মাণ করা হবে।
 
এছাড়াও বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য ১৪টি সাবস্টেশন, ১৫ কিলোমিটার ১১ কেভি এইচটি লাইন ও একটি ৩৩/১১ কেভি জিআইএস সাবস্টেশন নির্মাণ ও একটি হেলিপ্যাড নির্মাণ করা হবে।