• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

১২ বছর পর গ্রেফতার জেএমবির সক্রিয় সদস্য

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২৩  

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়েতুল মুজাহেদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর এক সক্রিয় সদস্য ১২ বছর পলাতক থাকার পর গ্রেফতার করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)।

গ্রেফতার ব্যক্তির নাম মো. সোলায়মান। তিনি ২০১১ সাল থেকে দীর্ঘ প্রায় ১২ বছর দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে ছিলেন।

সোমবার (৫ জুন) গাজীপুর কাপাসিয়া সনমানিয়া ইউনিয়নের গোম্বাবরস্থ গ্রামের পল্লী বিদ্যুৎ অফিস এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার (৬ জুন) এ তথ্য জানান বাংলাদেশ পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের পুলিশ সুপার (মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস উইং) মোহাম্মদ আসলাম খান।

তিনি জানান, দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সোলায়মান নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সক্রিয় সদস্য হয়ে বাংলাদেশের অখণ্ডতা, সংহতি ও জননিরাপত্তা বিপন্ন করার জন্য সাংগঠনিকভাবে কাজ করে আসছে। ২০১১ সালে ময়মনসিংহ মুক্তাগাছা ছালরা নামক এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্যসহ তার সহযোগী সমর আলীকে গ্রেফতার করে র্যাব-৯। তখন সেখান থেকে সে কৌশলে পালিয়ে যায় এবং দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে পলাতক থাকে।

তিনি আরও জানান, ২০১১ সালের পর থেকে কুমিল্লা, সিলেট, নরসিংদী ও গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে থেকে মাছের খামারের ব্যবসা করে আসছেন তিনি।

গ্রেফতার সোলায়মানের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থানায় বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে একটি মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়ধীন রয়েছে বলেও জানায় এটিইউ।