• রোববার   ২৬ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
পদ্মা সেতুর সফলতায় প্রধানমন্ত্রীকে কুয়েতের রাষ্ট্রদূতের অভিনন্দন নতুন প্রজন্মকে প্রস্তত হতে বললেন প্রধানমন্ত্রী আমরা বিজয়ী জাতি, মাথা উঁচু করে চলবো: প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পরিবারের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ: রাষ্ট্রপতি মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণাঞ্চলের উন্নতির জন্য নিজের জীবন দেয়ার ওয়াদা- প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর ওপর হাজারো মানুষের ঢল ‘আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই’ শিবচরের সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী অবশেষে এলো সেই মাহেন্দ্রক্ষণ: পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন কংক্রিটের অবকাঠামো নয়, পদ্মা সেতু আমাদের অহংকার: প্রধানমন্ত্রী এ সেতু স্পর্ধিত বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি: প্রধানমন্ত্রী ৪২টি পিলার বাংলাদেশের আত্মমর্যাদার ভিত: প্রধানমন্ত্রী ‘সর্বনাশা’ থেকে ‘সর্বআশা’ পদ্মা পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু পদ্মার বুক চিরে বাংলাদেশের ‘সাহস’ পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেশের জন্য গৌরবোজ্জ্বল ও ঐতিহাসিক দিন সুধী সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুর মতো সব প্রকল্পের সফল বাস্তবায়ন কামনা করছি: রাষ্ট্রপতি দখিনা দুয়ার খুলছে আজ

মৈত্রী ও বন্ধন চালু ২৯ মে, মিতালী ১ জুন

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২২  

দীর্ঘ দুই বছর বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে আন্তদেশীয় যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হচ্ছে। ২৯ মে মৈত্রী ও বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন দুটির চলাচল শুরু হবে, আর ১ জুন চালু হবে মিতালী এক্সপ্রেস।

মৈত্রী এক্সপ্রেস ঢাকা-কলকাতার মধ্যে চলাচল করে। বন্ধন চলে খুলনা-কলকাতা পথে। আর মিতালী এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে নিউজলপাইগুড়ির পথে চলাচল করবে।

ভারতীয় রেন্ত্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, আগামী ২৯ মে ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’ চালু হবে ঢাকা থেকে এবং ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ চালু হবে কলকাতা থেকে। পাশাপাশি আগামী ১ জুন ‘মিতালী এক্সপ্রেস’ চালু হবে নিউজলপাইগুড়ি থেকে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওই দিন দুই দেশ রেলভবন থেকে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠানের সূচনা করবে সবুজ পতাকার সংকেত দেখিয়ে।

২০০৮ সালের ১৪ এপ্রিল বাংলা নবর্ষের দিনে প্রথম ভারত-বাংলাদেশ আন্তদেশীয় যাত্রীবাহী ট্রেন মৈত্রী এক্সপ্রেসের যাত্রা শুরু হয়। বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হয়েছিল ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর এবং মিতালী এক্সপ্রেস ২০২১ সালের ২৭ মার্চ।

দেশে করোনা সংক্রমণ দেখা দেওয়ার পর ২০২০ সালের ২৪ মার্চ থেকে সব ধরনের যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর আগে ১৫ মার্চ থেকে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে চলাচলকারী আন্তদেশীয় ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সংক্রমণ কমায় মাঝে দেশের ভেতরে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হলেও আন্তদেশীয় ট্রেন চলাচল বন্ধই থাকে।