• বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৫ ১৪২৮

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ভয়-লোভের ঊর্ধ্বে থাকুন, ডিসিদের প্রধানমন্ত্রী ডিসিদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর ২৪ দফা নির্দেশনা ‘শহিদ ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ভিক্ষা করবে আমি দেখতে চাই না’ ওমিক্রনে মৃত্যু বাড়ছে, সচেতন থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সেবা নিতে এসে মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন: প্রধানমন্ত্রী তৃণমূলের মানুষের জীবনমান উন্নত করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ইসির সক্ষমতা বাড়ানোর প্রস্তাব আওয়ামী লীগের সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গঠনে গুরুত্ব আরোপ রাষ্ট্রপতির ইসি গঠনে আইনের খসড়া অনুমোদন মন্ত্রিসভায় জঙ্গিবাদ নির্মূলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিকেলে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আ’লীগের সংলাপ নৌকায় ভোট দিয়েই রংপুর মঙ্গামুক্ত: প্রধানমন্ত্রী আর যেন কখনও মঙ্গা দেখা না দেয়: প্রধানমন্ত্রী রংপুর এখন উদ্বৃত্ত খাদ্যের অঞ্চল: প্রধানমন্ত্রী রংপুর বিভাগীয় সদর দফতর কমপ্লেক্স ভবন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বছরের প্রথম অধিবেশনে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি স্বাস্থ্য বিষয়ক গবেষণা কম হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী ‘গবেষণা লব্ধ জ্ঞানকে দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজে লাগাতে হবে’ টিউলিপ নাম হওয়ায় নেদারল্যান্ডস থেকে কম্পিউটার নেয়নি খালেদা জিয়া ওমিক্রন দ্রুত ছড়াচ্ছে, সর্তক থাকুন: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাবাজার রুটে ফেরি চলাচলের সময় ২ ঘণ্টা কমেছে

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০২১  

বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচলের সময়সীমা দুই ঘণ্টা কমিয়ে আনা হয়েছে। বর্তমানে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল করছে।

এর আগে ভোর সাড়ে ৬টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল করতো। বিআইডব্লিউটিসি'র বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ফেরি চলাচলের সময় কমিয়ে আনা হয়েছে। বর্তমানে ৮ ঘণ্টা ফেরি চলাচল করবে। নৌরুটে কদম, কুঞ্জলতা, বেগম সুফিয়া কামাল ও বেগম রোকেয়া নামের চারটি কে-টাইপ ফেরি চলাচল করছে।

ঘাটের একটি সূত্র জানিয়েছে, ভোরে কুয়াশাচ্ছন্ন থাকায় পদ্মাসেতুর নিরাপত্তাজনিত কারণে ভোর সাড়ে ৬টার পরিবর্তে সকাল ৮টা থেকে ফেরি চলাচল করছে। এবং বিকেল ৪টায় উভয় ঘাট থেকে সর্বশেষ ফেরি ছেড়ে যাচ্ছে।

বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে জানা গেছে, নৌরুটে ফেরি স্বল্পতার কারণে ভোগান্তি লেগেই রয়েছে। আগে ১০ ঘণ্টা ফেরি চলাচল করেও ঘাটে আসা সকল যানবাহন পার করতে পারেনি। এখন ৮ ঘণ্টাতে আরও কম সংখ্যক যানবাহন পার করা ছাড়া কোনো উপায় থাকছে না। প্রতিদিন শতশত গাড়ি পদ্মা পার হতে ব্যর্থ হবে। ফলে ভোগান্তির মাত্রা আরও কিছুটা বেড়ে যাচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসি'র বাংলাবাজার ঘাটের কর্মকর্তারা বলেন, কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মতেই আমরা ফেরি চালিয়ে থাকি। চারটি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার বেশ কষ্টকর। তবে অ্যাম্বুলেন্স, লাশবাহী গাড়ি ও অসুস্থ থাকলে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে পার করে থাকি। যাতে করে তারা ভোগান্তিতে না পরে। এছাড়া অসংখ্য গাড়ি দিন শেষে পার করা সম্ভব হয় না।

যানবাহনের চালকেরা জানান, নৌরুটে ভোগান্তি পিছু ছাড়ছে না। এখন সময় ২ ঘণ্টা কমানো হয়েছে। ফেরির সংখ্যা বাড়ানো হলে কিছুটা স্বস্তি মিলতো।

এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে রোববার (৬ ডিসেম্বর) ভোর থেকে টানা বৃষ্টি হচ্ছে শিবচরে। ফলে নৌরুটে যাত্রীদের ভোগান্তি বেড়েছে। নৌযান চলাচল করলেও লঞ্চঘাট যাত্রী শূন্য বলে জানা গেছে। এছাড়া ফেরিঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন আটকে আছে বলে ফেরিঘাট সূত্র জানিয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসি'র বাংলাবাজার ঘাটের ব্যবস্থাপক মো. সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, সারাদিনে এখন ৮ ঘণ্টা ফেরি চলছে। অনেক যানবাহন শেষ পর্যন্ত আমরা পার করতে পারি না। তবে জরুরি যানবাহন অগ্রাধিকার দিয়ে পার করা হচ্ছে।