• বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ২০ ১৪২৮

  • || ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দোকানপাট খুলবে ১১ আগস্ট কিছু বেইমান-মুনাফেকের জন্য তার দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গঠন সম্ভব হয়নি নিম্ন আয়ের মানুষও আমাদের প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী মুজিবের দেশে প্রতিটি মানুষ সুন্দর ও উন্নত জীবন পাবে জাতিসংঘের ৭৬তম অধিবেশনে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী বস্তিবাসীদের আধুনিক ফ্ল্যাট দিলেন প্রধানমন্ত্রী ‘বঙ্গবন্ধু হত্যায় ষড়যন্ত্রকারী কারা, ঠিকই আবিষ্কার হবে’ ‘বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পৃষ্ঠপোষকতায় এগিয়ে খালেদা জিয়া’ দেশের নাম বদলে দিতে চেয়েছিল পঁচাত্তরের খুনি চক্র: প্রধানমন্ত্রী এক সময় নিজেই রক্তদান করতাম: প্রধানমন্ত্রী হত্যার বিচার করেছি, ষড়যন্ত্রের পেছনে কারা এখনও আবিষ্কার হয়নি শোকের মাস আগস্ট শুরু একনেক বৈঠক শুরু, অনুমোদন হতে পারে ১০ প্রকল্প করোনা টেস্টে গ্রামীণ জনগণের ভীতি নিরসনে কাজ করতে হবে জয়ের কাছ থেকেই আমি কম্পিউটার শিখেছি : প্রধানমন্ত্রী মানুষকে ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদন হবে দেশেই: শেখ হাসিনা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন আজ করোনা মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীসহ সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৫ জুলাই ২০২১  

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের জন্য উপহার হিসেবে ৩০০ কেজি আম পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৫ জুলাই) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দরে ৩০টি কার্টনে এই আম আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতীয় কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এসময় দুই দেশের শূন্য রেখায় প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহারের আম গ্রহণ করেন ত্রিপুরাস্থ বাংলাদেশের সহকারী হাই কমিশনার জোবায়েদ হোসেন এবং ত্রিপুরা ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্টের ব্যবস্থাপক দেবাশীষ নন্দি।

আনন্দঘন পরিবেশে ত্রিপুরাস্থ বাংলাদেশের সহকারী হাই কমিশনার জোবায়েদ হোসেন জানান, গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য দুই হাজার ৬০০ কেজি আম বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে পাঠানো হয়েছে। আজ ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের জন্য রংপুরের বিখ্যাত সুস্বাদু ৩০০ কেজি হাড়িভাঙা আম উপহার হিসেবে যাচ্ছে।

ত্রিপুরা ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্টের ব্যবস্থাপক দেবাশীষ নন্দি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের আত্মিক সম্পর্ক। এছাড়া দু'দেশের সম্পর্ক চমৎকার বিদ্যমান রয়েছে। ত্রিপুরা এবং বাংলাদেশের মানুষ আমরা একাকার, কেবল মাঝখানে কাঁটাতারের বেড়া। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই উপহারের মধ্য দিয়ে আমাদের ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের প্রকাশ হলো। আমি ত্রিপুরাবাসীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

এ সময় বাংলাদেশ হাই কমিশনের প্রথম সচিব মো. রেজাউল হক চৌধুরী, ভাররতীয় ত্রিপুরা কাস্টমস সুপারিন্টেন্ড জয়দেব মুখার্জি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া স্থলবন্দরের সহকারী পরিচালক ট্রাফিক মোস্তাফিজুর রহমান, কাস্টমস ইন্সপেক্টর ফারুক হোসেন, আখাউড়া স্থলবন্দরের ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা আবদুল হামিদ, আখাউড়া স্থলবন্দরের বিজিবি কর্মকর্তা আব্দুর রহমানসহ দুই দেশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তবে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের আম হস্তান্তর করার সময় আখাউড়া স্থলবন্দরে দুই দেশের শূণ্যরেখায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কোনও কর্মকর্তাকে দেখা যায়নি।