• বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ২ ১৪৩১

  • || ০৯ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-বেইজিং ৭ ঘোষণাপত্র, ২১ চুক্তি সই চীনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা

‘অপচয় করা চলবে না, মিতব্যয়ী হতে হবে’

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি ২০২০  

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, কোনো ধরনের অপচয় করা চলবে না। ক্রয়-বিক্রয়ে আমাদের সাবধান হতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই মিতব্যয়ী হতে হবে। যদি কাজে কোনো ধরনের ব্যত্যয় ঘটে, তাহলে তা আইনিভাবে প্রতিরোধ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) ভবনে জনশুমারি ও গৃহগণনাবিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এম এ মান্নান বলেন, আমাদের লিখিত নিয়ম-নীতি আছে। এখানে মৌখিক কোনো ব্যাপার নেই, সরকারি বিধি-বিধান ছাপানো আছে। সেগুলো পালন করতে হবে অক্ষরে অক্ষরে। ক্রয়, নিয়োগ ও পরিচালনা- প্রতিটি ক্ষেত্রে পরিসংখ্যান ব্যুরোর সবাইকে সঠিকভাবে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, জনগণ আমাদের প্রভু। তাদের জন্য আমরা কাজ করি। তারা যেন আমাদের কাজে সন্তুষ্ট হয় এবং আমাদের কাজের মাঝে যেন তাদের আস্থা প্রতিফলিত হয়।

দুর্নীতি সম্পর্কে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দুর্নীতি সম্পর্কে আমাদের দেশের মানুষ কথা বলে, আমরা বলি। দুর্নীতি সম্পর্কে আমাদেরকে পদে পদে সাবধান হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, জনশুমারির কাজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যারা এ কাজের সাথে জড়িত প্রত্যেকের কাজই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যারাই গণনার কাজ করবে, তাদের কাজগুলো সঠিকভাবে মনিটরিং করতে হবে। যাতে কেউ বাদ না পড়ে।

পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস ও সম্মানিত অতিথি ছিলেন ইউএনএফপিএর প্রতিনিধি ড. আশা টেরকলনস।

জনশুমারির জন্য গত ২৯ অক্টোবর ১ হাজার ৭৬১ কোটি ৭৯ লাখ টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (একনেক)। এর মধ্যে বাংলাদেশ সরকার দেবে ১ হাজার ৫৭৮ কোটি ৬৮ লাখ এবং বিদেশি অর্থায়ন ১৮৩ কোটি ১১ লাখ টাকা। ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২৪ সালের জুনের মধ্যে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।