• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৭ রজব ১৪৪৪

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে প্রধানমন্ত্রীকে বরণে প্রস্তুত রাজশাহী প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় রাজশাহীবাসী, ব্যাপক জনসমাগমের প্রস্তুতি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের মূল চাবিকাঠি ডিজিটাল সংযোগ সাধারণ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী আপনি কি আল্লাহর ফেরেস্তা, ফখরুলকে কাদেরের প্রশ্ন কাউকে সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেব না: প্রধানমন্ত্রী আর্থসামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল: প্রধানমন্ত্রী বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে কাস্টমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে একাত্তরে গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমার ব্যর্থতা থাকলে খুঁজে বের করে দিন: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি বরিশাল বিভাগের ১৪ টি সেতুর উদ্বোধন করেন

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০২২  

বরিশাল প্রতিনিধি : একযোগে বরিশাল বিভাগের ১৪টি সড়ক সেতুসহ শতাধিক সেতুর শুভ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৭ নভেম্বর, সোমবার গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে একযোগে বরিশাল বিভাগের ১৪টি সড়ক সেতুসহ শতাধিক সেতুর শুভ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জেলা প্রশাসন, বরিশালের আয়োজনে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে বরিশাল প্রান্তে সঞ্চালনা করেন জেলা প্রশাসক, বরিশাল জসীম উদ্দীন হায়দার।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় জাহিদ ফারুক এমপি, মেয়র, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, বিভাগীয় কমিশনার, বরিশাল মোঃ আমিন উল আহসান, মাননীয় সংসদ সদস্য, বরিশাল-৬ নাসরিন জাহান রতনা এমপি, সংসদ সদস্য, বরিশাল-৪ আসন পংকজ নাথ এমপি, সংসদ সদস্য, সংরক্ষিত নারী আসন সৈয়দ রুবিনা মীরা, অতিরিক্ত সচিব, উন্নয়ন, সড়ক ও জনপদ বিভাগ একেএম শামিম আক্তার, ডিআইজি, বরিশাল রেঞ্জ, বরিশাল এসএম আক্তারুজ্জামান, পুলিশ কমিশনার, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ মোঃ সাইফুল ইসলাম বিপিএম বার, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (বরিশাল অঞ্চল) এ. কে. এম. আজাদ রহমানসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সুধীজন, বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে গণভবন প্রান্তে সেতুগুলোর ওপরে একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। পরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অর্থনৈতিক মন্দা মোকাবিলায় সবাইকে মিতব্যয়ী হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, আমরা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছি। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়। আমরা বাংলাদেশটাকে উন্নয়নের জন্য রূপকল্প-২০২১ ঘোষণা দিয়েছিলাম।
তিনি আরও বলেন, আজ ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। পার্বত্য চট্টগ্রামে যেখানে মোবাইল নেটওয়ার্ক ছিল না, সেখানে সেটি করে দিয়েছি। এর জন্য বিভিন্ন জেলা যুক্ত করে আজ একসঙ্গে ১০০টি সেতুর উদ্বোধন করতে পারছি।

সেতুগুলোর মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগে ৪৫টি, সিলেট বিভাগে ১৭টি, বরিশাল বিভাগে ১৪টি, ময়মনসিংহে ০৬টি, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী ও রংপুরে ০৫টি করে, ঢাকায় ০২টি এবং কুমিল্লায় ০১টি রয়েছে। সরকার ৮৭৯ কোটি ৬২ লাখ টাকা ব্যয়ে এসব সেতু নির্মাণ করেছে। বরিশাল জেলায় ৪টি সেতু উদ্বোধন করা হয়, চন্দ্রমোহন সেতু ২৬.৭৫ মিটার, কলাতলা সেতু ৪৪.০২ মিটার, তালুকদারহাট সেতু ৩৭.৯২ মিটার এবং সুন্দরকাঠী সেতু ৩৭.৯২ মিটার। এছাড়া ঝালকাঠী জেলায় ৪টি সেতু, পটুয়াখালী জেলায় ২টি সেতু, পিরোজপুর জেলায় ৪টি সেতু।