• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

বরিশালে রিমালের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্থ ১৭০ বিদ্যালয়

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২৪  

ঘূর্ণিঝড় রিমালের রিমালের তাণ্ডবে বরিশাল জেলার ১০ উপজেলার ১৭০টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এতে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ আনুমানিক ২ কোটি ৬১ লক্ষ ৬১ হাজার ৫৪৮ টাকা। জানা গেছে, বরিশাল জেলায় ১ হাজার ৫৯০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এরমধ্যে ১৭০টি বিদ্যালয়ের অবকাঠামোর ওপর গাছ পড়ে ছাদ, ছাউনির টিন, ফ্লোর, দরজা-জানালা ও আসবাবপত্র নষ্ট হয়ে গেছে। সেইসাথে অধিকাংশের টয়লেটও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

বরিশাল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যালয়ের তালিকা অনুযায়ী- বরিশাল সদরে ৫, বাবুগঞ্জে ১১টি, আগৈলঝাড়ায় ৫টি, উজিরপুরে ১২ টি, গৌরনদীতে ১৯টি, বাকেরগঞ্জে ৩৪টি, বানারীপাড়ায় ৮টি, মুলাদীতে ৩১টি, মেহেন্দিগঞ্জে ৪১টি এবং হিজলায় ৪টি বিদ্যালয় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

যারমধ্যে বরিশাল নগরের সিসটার্স ডে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর হেলে পড়েছে। এছাড়াও পানি পানের জন্য নলকূপ বসানো হয়েছিলো, তবে সেটিও ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় সংস্কারে উদ্যোগ হাতে নেয়া হয়েছে।

সিসটার্স ডে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজা খানম জানান, বর্তমানে ৬ শত শিক্ষার্থীর পাঠদান অব্যাহত রেখেছি। তবে ঘূর্ণিঝড়ের সময় সেপটিক ট্যাংক পানিতে ভরে গেছে, দরজা-জানালা নষ্ট হয়েছে এছাড়াও সীমানা দেয়াল হেলে পড়েছে।

হিজলা উপজেলার ৪৮ নং চর বাউশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল ইসলাম জানান, ঝড়ে বিদ্যালয়ের টিনশেড ঘরের চালা ও বেড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্য অবকাঠামো থাকায় সেখানে আপাতত ক্লাস নেয়া হচ্ছে। আর ক্ষতিগ্রস্থ অবকাঠামোর এখনো সংস্কার কাজ শুরু করা না হলেও যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বরিশাল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শেখ মো. আক্তারুজ্জামান বলেন, বরিশাল জেলায় ঘূর্ণিঝড় রিমালের আঘাতে বেশ কিছু বিদ্যালয়ের স্থাপনার ক্ষতি হলেও পাঠদান কোনওভাবে ব্যাহত হয়নি। আর্থিক ক্ষতি নিরূপণ করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করে সুষ্ঠু সমাধান করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।