• শনিবার ২০ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

  • || ১২ মুহররম ১৪৪৬

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

ভোলার ইলিশা নৌ থানায় এএসআই গুলিবিদ্ধ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০২৪  

ভোলার ইলিশা নৌ-থানায় পুলিশের এক সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এসময় টেবিলের ওপর রাখা পিস্তল থেকে অসাবধানতা বসত গুলি বের হয়ে এএসআই মোকতার গুলিবিদ্ধ হন। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে ভোলার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে ওই এএসআইকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। রোববার (২৩ জুন) বিকালের দিকে নৌ-থানার ভিতরে এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ ওই পুলিশ অফিসারের নাম মো. মোক্তার হোসেন। তিনি ইলিশা নৌ-থানায় প্রায় দুই বছর ধরে  কর্মরত আছেন। তার বাড়ী চট্টগ্রামের মিরসরাই ।

ঘটনার পরে সন্ধ্যার দিকে পূর্ব ইলিশা সদর নৌ থানা পরিদর্শনে যায় ভোলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রিপন কুমার সরকার। এসময় তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, নৌ থানার এএসআই মোক্তার হোসেন ডিউটিতে যাওয়ার জন্য অস্ত্রাগার থেকে অস্ত্র বুঝে নেয়ার সময় মিস ফায়ার হয়ে মোকতার গুলিবিদ্ধ হন। প্রত্যক্ষদর্শী কেউ থানায় না থাকায় এর বেশি জানা যায়নি। বিষয়টি নৌ থানায় হওয়ায় তারা ব্যবস্থা নেবেন। পরে তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান সহকর্মীরা। তবে কিভাবে গুলিবিদ্ধ হলো তা অধিকতর তদন্ত হলে জানা যাবে বলে জানান।

ঘটনার সময় নৌ থানায় ৮ জন সদস্য  ছিলেন। মোকতার বিশেষ অভিযানে চট্টগ্রামের কাপ্তাই যাওযার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। মোকতার আহত হওয়ার পর তাকে নিয়ে ওসি ও দুজন কনস্টবল বরিশাল গেছেন। বাকি ৫ জন থানায় আছেন।

এই ঘটনা সম্পর্কে একাধিকবার সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিদ্যুৎ বড়ুয়াকে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

তবে একাধিক সূত্র থেকে জানা যায়, নৌ থানার ওসির সাথে এএসআই মোক্তার হোসেন এর বিভিন্ন নৌ ঘাটের বিভিন্ন ভাগবাটোয়ারা নিয়ে নিজেদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে ঝামেলা চলে আসছিলো। তারই সূত্রপাতে এই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানান।