বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৬ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : চার্জ গঠন ২৮ নভেম্বর বরিশালে ৪৫ টাকা দরে টি‌সি‌বির পেঁয়াজ বি‌ক্রি, উপচেপড়া ভিড় র‌্যাব-৮ এর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার কর্মবিরতি প্রত্যাহার, বরিশালে বাস চলাচল স্বাভাবিক ৭ ডিসেম্বর বিচারবিভাগীয় সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে বৃত্তি পাচ্ছেন ১৪১৭ শিক্ষার্থী কবি সুফিয়া কামালের মৃত্যুবার্ষিকী আজ বরিশাল বোর্ডে এসএসসির ফরম পূরণে সময় বাড়লো জাতীয় অর্থনীতিতে নারীর অবদান সবচেয়ে বেশি: পলক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ট্রাক মালিকদের ফের বৈঠক আজ চক্রান্তকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে জয় দিয়ে বছর শেষ করল ব্রাজিল দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী লবণের দাম বাড়ালে জেল-জরিমানা : বাণিজ্যমন্ত্রী লবণ নিয়ে গুজবে কান দিবেন না: শিল্প মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের মধ্যে ১০০০ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে সরকার পদ্মাসেতুর প্রায় আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান সেনা কল্যাণ সংস্থার চারটি স্থাপনা উদ্বোধন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহর জন্মদিন আজ
৭৩

৬০০ কোটি টাকা দিতে শেভরনকে হাইকোর্টের নির্দেশ

প্রকাশিত: ৪ নভেম্বর ২০১৯  

তেল-গ্যাস উত্তোলনকারী যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক বহুজাতিক কম্পানি শেভরন বাংলাদেশকে তাদের লভ্যাংশ থেকে ৬০২ কোটি টাকা প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শ্রমিকদের দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এটা প্রতিষ্ঠানটির ৬০০ কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শ্রমিকদের মধ্যে সমভাবে বণ্টন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ সোমবার এ রায় দেন। এ বিষয়ে তিনবছর আগে জারি করা রুল নিষ্পত্তি করে এ রায় দেন আদালত।

কম্পানির ঢাকা ও সিলেট কার্যালয়ে কর্মরত ৫৩১ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী-শ্রমিকের করা এক রিট আবেদনে এ রায় দেওয়া হয়। রিট আবেদনকারী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার ওমর সাদাত, ব্যারিস্টার আবির আব্বাস চৌধুরী ও ব্যারিস্টার আয়েশা। শেভরনের পক্ষে ছিলেন ড. নাইম আহমেদ। 

রায়ের পর ব্যারিস্টার ওমর সাদাত সাংবাদিকদের বলেন, শ্রম আইন- ২০০৬ অনুযায়ী কম্পানির লভ্যাংশের পাঁচ শতাংশ কর্মকর্তা-কর্মচারী-শ্রমিকদের মধ্যে বণ্টন করতে হবে। কিন্তু শেভরন ২০০৬ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত কোনো লভ্যাংশ কর্মকর্তা-কর্মচারী-শ্রমিকদের দেয়নি। এ কারণে রিট আবেদন করা হয়। ইতিমধ্যেই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে শেভরনের একটি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে। শেভরন টাাক দিতে রাজি হয়েছে। এটা আদালতকে জানানো হয়েছে। এ অবস্থায় আদালত রায় দেন।

এই বিভাগের আরো খবর