• শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
একদিনে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ২৩ জনের বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের র‌্যাব-৮ এর অভিযানে মাদারীপুর থেকে জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ছাড়াল ৩০ হাজার মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড বরিশালে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিমি. বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টির আশঙ্কা সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী
১১৮

১৯৭২ সালের পর নাসা যে কারণে চাঁদে যাওয়ার সাহস দেখায়নি

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

১৯৬৯ সালের ২১ জুলাই চাঁদের পিঠে প্রথম পা রাখেন নীল আর্মস্ট্রং। এর ২০ মিনিট পর তার সঙ্গে যোগ দেন অপর মার্কিন নভোচারী এডুইন অলড্রিন। সেই অভিযানের পর ১৯৭২ সাল পর্যন্ত ছয় বার মানুষের পা পড়ে চাঁদের বুকে। এরপর নাসা আর কোনো চন্দ্র অভিযান পরিচালনা করেনি। কিন্তু কেন? এই প্রশ্ন এখনো অনেকের মনে উদয় হয়।

মঙ্গল গ্রহ নিয়ে বিজ্ঞানীরা এখন যতটা আগ্রহী, চাঁদ নিয়ে ঠিক ততটা নয়। পৃথিবীর উপগ্রহটিতে ১৯৫৯ সালে প্রথম নভোযান পাঠায় রাশিয়া। ইসরো’র ‘চন্দ্রযান-২’ ছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে চাঁদে আর কোনো অভিযান চালানো হয়নি। তবে দীর্ঘ সময় চাঁদে যাওয়ার অভিযান না চালানোর বিষয়ে এলিয়েন বিশ্বাসীদের দাবি, চাঁদে যারা গিয়েছিলেন তারা এলিয়েনের দেখা পেয়েছিলেন। চাঁদের বুকে তারা এমন কিছু এলিয়েন স্থাপনা দেখেছিলেন যা তাদের মাথা ঘুরিয়ে দেয়।

অ্যাপোলো ১৪ তে চাঁদে যাওয়া নভোচারী এডগার মিশেল এই বিশ্বাসের ওপর খানিকটা ঘি ঢেলেছেন! তিনি অকপটে বলেছিলেন, যখন আমি উপগ্রহটির মাটিতে হাঁটছিলাম তখন আমার মনে হচ্ছিলো আমি একা নই। অনেকেই আমার পিছু নিয়েছে; তবে ঠিক ক’জন তা জানা ছিল না! এমনকি তারা কোথা থেকে কীভাবে আমাদের ওপর নজর রাখছিল তাও জানি না।

 

চাঁদে এলিয়েন স্থাপনা নিয়ে নানা ঘটনা রটেছে

 

চাঁদের পিঠে পা রাখা দ্বিতীয় এডুইন অলড্রিনও জানিয়েছিলেন, চাঁদে যে কেউ আছে তা তিনি প্রতিমুহুর্তে উপলব্ধি করেছিলেন। তিনি বলেন, ‘পরিবেশটা গা চমচমে তো ছিলই! এর মূল কারণ হয়তো কেউ আমাদের পিছু নিয়েছিল। তাছাড়া আমাদের নজরে একটি দু’টি নয়.. একাধিক অচেনা নভোযান চোখে পড়ে!’

অ্যাপোলো ১১ অভিযানকালে তাদের শাটলযানকে ঘিরে বেশকিছু রহস্যময় আলোর বস্তুকে ঘুরতে দেখেন এডুইন অলড্রিন। এই ধরনের আলো তিনি চাঁদের অনেক স্থানেই ঘুরতে দেখেছিলেন। যা দেখে তার মনে হয়েছে এগুলো ব্যাখ্যাতীত সেসব যান, যেগুলোকে আমরা ইউএফও বলে থাকি। যদিও পরের দিকে এই বিষয়ে কথা বলা একদম বন্ধ করে দেন তিনি।

চাঁদে বুদ্ধিমান প্রাণীদের যে অস্তিত্ব রয়েছে তা নাসা জানে। তাদের সঙ্গে যোগাযোগও হয়। এমনটাই বিশ্বাস করেন এলিয়েন বিশ্বাসীরা। অনেকে এও বলেন, একটানা ৬ বারের অভিযানে তারা এলিয়েনের কাছ থেকে হুমকিও পান। আর সেকারণেই চাঁদ নিয়ে পরবর্তীতে আর আগ্রহ দেখায়নি নাসাসহ বিশ্বের কোনো দেশের মহাকাশ সংস্থাই।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর