বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আজ বরিশালে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে যুদ্ধ জাহাজ সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী আগৈলঝাড়ায় প্রতিবন্ধি শিশু ধর্ষণ, এক ঘন্টার মধ্যে ধর্ষক গ্রেফতার সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা ইউনেস্কোর সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বরিশালে পৃথক অভিযানে ২৫ মণ জাটকা জব্দ শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা দুদকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ সশস্ত্র বাহিনী নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন- প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আইভোরি কোস্টের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ সশস্ত্র বাহিনী জাতির গর্বের প্রতীক : রাষ্ট্রপতি আজ বিশ্ব টেলিভিশন দিবস সারাদেশের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন লিখতে হবে স্পষ্ট অক্ষরে: হাইকোর্ট
৪৭

১১১ ফুটের গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে!

প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০১৯  

 

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে ১১১ ফুট ব্যাসের একটি গ্রহাণু। ঘণ্টায় ২২ হাজার মাইল গতিবেগে এগিয়ে আসছে ‘২০১৯ টিএ৭’ নামের এটি। রাশিয়ান গণমাধ্যম আরটিতে প্রকাশিত এক খবরে জানা যায় এই তথ্য। 

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (নাসা) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বিগত ১১৫ বছরে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে আসা গ্রহাণু এটি। এর আগে এত কাছে আর কোনো গ্রহাণু আসেনি। ১৪ অক্টোবর (সোমবার) এটি পৃথিবীর নিকটতম দূরত্ব অতিক্রম করে পাশ কাটিয়ে চলে যাবে। তবে, বিশালাকৃতির এই গ্রহাণুকে নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই বলে জানান বিজ্ঞানীরা। কারণ, এটি ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা নেই। 

ইতোমধ্যেই গ্রহাণু ‘২০১৯ টিএ৭’ জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মধ্যে সাড়া ফেলেছে। নাসা জানিয়েছে, এই গ্রহাণুটি সম্প্রতি আবিষ্কৃত সদস্যদের অন্তর্ভুক্ত। সাধারণত এগুলো শিলানির্মিত হয়ে থাকে এবং এদের আকার হয় খুবই ছোট। এই গ্রহাণুপুঞ্জ নিজ কক্ষপথে প্রতি ২৪০ দিনে একবার সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে। পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে এক বছর বা ৩৬৫ দিনে। 

‘২০১৯ টিএ৭’ গ্রহাণুটি পৃথিবীর ৯ লাখ ৩০ হাজার মাইল দূর দিয়ে ছুটে যাবে বলে জানিয়েছেন নাসার বিজ্ঞানীরা। সে সময় এটি বুধ গ্রহের থেকেও ৫০ গুণ কাছে দিয়ে উড়ে যাবে। 

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন বেশিরভাগ সময়ই এসব গ্রহাণু মহাকাশেই পুড়ে যায়। তবে নিজ কক্ষপথ থেকে ছিটকে ভূপৃষ্ঠে পতিত হলেও কিছু করার থাকবে না। কেননা পৃথিবীর এমন প্রতিরোধ ব্যবস্থা নেই। অনেকেরই ধারণা, এমনই কোনো এক গ্রহাণু আছড়ে পড়ায় পৃথিবী থেকে ডাইনোসর বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছিল।

এই বিভাগের আরো খবর