সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   ভাদ্র ৩১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বরিশাল নগরীতে আসছে স্মার্ট এলইডি লাইটিং বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ এ পি জে আব্দুল কালাম স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত শেখ হাসিনা টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ বরিশালকে যানজট মুক্ত রাখতে কাজ করছে ট্রাফিক সদস্যরা- ডিসি ট্রাফিক সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন : প্রধানমন্ত্রী বরিশালে কাজী নজরুল ইসলামের ৪৩তম প্রয়াণ বার্ষিকী অনুষ্ঠিত রাজশাহীর পুলিশ একাডেমিতে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী গণপরিবহনে মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের সারদার পথে প্রধানমন্ত্রী হাজিদের দেশে ফেরার শেষ ফ্লাইট আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস আজ শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম আজ শুরু
১২১

১০ ছেলের পর অবশেষে জন্ম দিলেন রাজকন্যা!

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ব্রিটিশ নাগরিক অ্যালেক্সিস। বয়স তখন ২২ বছর ছিল। সেই সময়ে তিনি প্রথম সন্তানের জন্ম দেন। পরে ব্রিটিশ দম্পতি অ্যালেক্সিস ও ডেভিড এক কন্যা সন্তানের আশায় ফের সন্তান জন্ম দেন। আশা পূর্ণ হলো না। সেই পুত্র সন্তানই এলো ঘরে। তবুও মেয়ের আশায় সন্তান নেয়া বন্ধ করেননি এই দম্পতি।

এভাবে দীর্ঘ ১৫ বছরে এই দম্পতি জন্ম দিয়েছেন ১০ জন ছেলে। তবুও হাল ছাড়েননি তারা। দীর্ঘ সাধনার পর অবশেষে আশা পূরেণ হয়েছে তাদের। ঘরকে আলোকিত করতে জন্ম নেয় দীর্ঘ সাধনার ‘কন্যা শিশু’।

১০ ছেলে সন্তান জন্ম দিয়ে অ্যালেক্সিস এবং ডেভিড প্রথম ব্রিটিশ দম্পতি হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন দেশটিতে। অ্যালেক্সিস বলেন, আবশেষে আমরা চাঁদ পেয়েছি। তবে আমি আশা করছিলাম এবারো হয়তো শুনবো যে, আমি ছেলে সন্তানের মা হয়েছি। কিন্তু না আমি ভিন্ন কথা শুনলাম।

 

আমি শুনলাম যে, আমি কন্যা সন্তানের মা হয়েছি। তিনি আরও বলেন, আমি হতবাক হয়েছি, তবে আনন্দিত। এখন রাজকন্যা আমাদের সঙ্গে আছে। এটি একটি চমৎকার অনুভূতি।

পৃথিবীতে আসার পরই ১০ ভাই তাকে স্বাগত জানিয়েছে। তার নাম রাখা হয়েছে ক্যামেরুন। কন্যা সন্তান জন্ম নেয়ার পর তারা আর কোনো সন্তান নিতে চাচ্ছেন না। 

অ্যালেক্সিস বলেন, আমরা অবশ্যই এখন থামছি। প্রতিবারই বলতাম এবারই শেষ কিন্তু এতদিন কথা রাখতে পারিনি। তবে এবার সত্যি সত্যিই এটি শেষ বার।

এই বিভাগের আরো খবর