• শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
একনেক বৈঠক শুরু, অনুমোদন হতে পারে ১০ প্রকল্প করোনা টেস্টে গ্রামীণ জনগণের ভীতি নিরসনে কাজ করতে হবে জয়ের কাছ থেকেই আমি কম্পিউটার শিখেছি : প্রধানমন্ত্রী মানুষকে ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদন হবে দেশেই: শেখ হাসিনা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন আজ করোনা মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীসহ সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক সুশৃঙ্খল সেনাবাহিনী গণতন্ত্র সুসংহত করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ নভেম্বরে এসএসসি, ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী নিম্নআয়ের মানুষের জন্য ৩২০০ কোটি টাকার প্রণোদনা ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট মানতে হবে যেসব বিধিনিষেধ কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি দারিদ্র্যের সাথে জনসংখ্যা বৃদ্ধির সম্পর্ক রয়েছে: রাষ্ট্রপতি উন্নয়নের অন্যতম পূর্বশর্ত পরিকল্পিত জনসংখ্যা: প্রধানমন্ত্রী ক্লাইমেট ভালনারেবলস ফাইন্যান্স সামিট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এক টন আম যাচ্ছে নেপালে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী ‘জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার পর খালেদাকে ঘরে নিতে চাননি’

স্বাস্থ্যবিধি মেনে বরিশালে মার্কেট চালু রাখার ঘোষণা

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৯ মে ২০২০  

বরিশালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রোববার (১০ মে) থেকে মার্কেট খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চকবাজার দোকান মালিক সমিতি।

তবে কেউ চাইলে স্বেচ্ছায় দোকান বন্ধও রাখতে পারবেন। আর প্রশাসন বলছে, দোকান খোলা রাখতে স্বাস্থ্যবিধি ও বেধে দেয়া নিয়ম মান্য করতে হবে।

শনিবার (০৯ মে) দুপুরে চকবাজার ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি শেখ তোবারক হোসেন জানান, রোববার থেকে চকবাজারের দোকান-পাট খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে  মালিক সমিতি। তবে কোনো মালিক দোকান বন্ধ রাখতে চাইলে তাতেও কোন বাধা নেই। আবার কেউ খোলা রাখতে চাইলে তাকে সরকারি নির্দেশনা মেনে নিতে হবে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নুরুল ইসলাম জানান, দোকান মালিকদের সঙ্গে ইতোমধ্যে বৈঠক করা হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা ও সিদ্ধান্ত মেনে দোকান খোলা রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আর তদারকিতে নিয়োজিত থাকবে পুলিশ। কেউ অমান্য করলে নেওয়া হবে আইনগত ব্যবস্থা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ জেলা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান জানান, দোকান কেউ খুলতে না চাইলে সেটা তার নিজস্ব এখতিয়ার। তবে খোলা রাখলে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলতে হবে। তা না হলে নিয়মানুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চকবাজার, কাঠপট্টি, লাইন রোড, হেমায়েত উদ্দিন রোড ও পদ্মাবতি এলাকায় মালিক সমিতির ৫ শতাধিক দোকান রয়েছে এবং এটি বরিশালে শপিংয়ের কেন্দ্রস্থল।

করোনা সংক্রমণ এড়াতে একমাস ধরে লকডাউন চলছে বরিশালে। তবে নগরীর অনেক এলাকায় কৌশলে খোলা রাখা হচ্ছে দোকানপাট-ব্যবসা বাণিজ্য। দিন দিন রাস্তায় বাড়ছে মানুষ এবং যানবাহনের সংখ্যাও। আনুষ্ঠানিকভাবে খোলার আগেই খুলছে দোকান।

প্রথম দিকে লকডাউন বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসন এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকায় মানুষজনও অনেকটা ঘরে উঠে যান। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া তেমন একটা ঘর থেকে বের হননি কেউ। কিন্তু ধীরে ধীরে অসিহষ্ণু হয়ে পড়েছেন তারা। অনেকে বদ্ধ ঘরে প্রয়োজনও মেটাতে পারছেন না। এ কারণে রুটি-রুজি সহ নানা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হয়ে আসছেন মানুষ। খুলতে শুরু করেছে দোকানপাট। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ১০ মে থেকে দোকান খোলা রাখতে বললেও আগে থেকেই নানা কৌশলে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন দোকানিরা।