• সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৯, শনাক্ত ১৭৮৮ মূর্তি আর ভাস্কর্য এক নয়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বিএনপির গণতন্ত্র হচ্ছে ‘মুখে শেখ ফরিদ আর বগলে ইট’: কাদের ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদকপ্রাপ্ত ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান আর নেই করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, শনাক্ত ১৯০৮ ভ্যাকসিনের জন্য ৫০ শতাংশ টাকা ছাড়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৭, শনাক্ত ২২৯২ কিংবদন্তি ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তাকারী ২ পুলিশ বরখাস্ত করোনায় আরও ৩৯ জনের মৃত্যু ডিসেম্বরেই এইচএসসির ফল: শিক্ষামন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৮, শনাক্ত ২৪১৯ ববি শিক্ষার্থী সাওদা হত্যাকাণ্ডে আসামির যাবজ্জীবন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৮, শনাক্ত ২০৬০ স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করাই বিএনপির গণতন্ত্র: কাদের প্রখ্যাত আলেম পীরজাদা গোলাম সারোয়ার সাঈদী আর নেই মানুষের কঙ্কালসহ গ্রেফতার বাপ্পী তিন দিনের রিমান্ডে শ্রাবন্তীকে কুপ্রস্তাবের অভিযোগে খুলনায় যুবক গ্রেফতার ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে বসবে পদ্মাসেতুর অবশিষ্ট ৪ স্প্যান: কাদের

স্বাস্থ্যকর পাঁচ তেলেই শরীর থাকবে সুস্থ, রান্নাও হবে সুস্বাদু

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর ২০২০  

শরীর সুস্থ রাখতে খাবারের অবদানই সবচেয়ে বেশি। কেননা খাবারের মাধমেই শরীর তার চাহিদার সব পুষ্টি উপাদান পেয়ে থাকে। তবে শুধু রান্না করলেই তো হবে না। খাবার একই সঙ্গে পুষ্টিকর এবং স্বাস্থ্যকরও হতে হবে। 

রান্নার কিন্তু আরেক অপরিহার্য উপাদান তেল। তেল ছাড়া রান্নার কথা চিন্তাই করা যায় না। তবে তেল স্বাস্থ্যের জন্য যেমন ভালো তেমনি আবার খারাপও বটে। এটি খাবারের গুণমান নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিশেষ করে বাঙালি রান্নায় প্রথমেই প্যানে তেল দিয়ে তারপর রান্না শুরু হয়। এতে খাবারের স্বাদ কয়েক গুণ বেড়ে যায়। 

তবে অনেকেই রান্নায় তেলের বদলে ঘি বা মাখন ব্যবহার করে থাকে। আবার অনেকেই ভাবেন কোন তেল স্বাস্থ্যের জন্য ভালো হবে। তবে স্বাস্থ্যকর আর সুস্বাদু একই সঙ্গে কিন্তু পাওয়া যায় না। একদিক ছাড় দিতেই হয়। আজ তাহলে কয়েকটি তেলের কথা জেনে নিন। যেগুলো একদিকে যেমন আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখবে। অন্যদিকে খাবারের স্বাদ বাড়াবে ষোল আনা।

সরিষার তেল 
সরষে ইলিশ কিংবা খিচুরি রান্নায় এই তেল ব্যবহার করা হয় বেশি। তবে জানেন কি? যেকোনো রান্নাতেই সরিষার তেল ব্যবহার করা যায়। আর এই তেল দিয়ে রান্না করা খাবারের স্বাদও বেড়ে যায় কয়েক গুণ। শুধুমাত্র রান্নায় নয়, এটি আমাদের স্বাস্থ্য, ত্বক ও চুলের জন্যও অনেক উপকারি। এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদানগুলোতে সমৃদ্ধ।  

এটি বদহজম নিরাময়ে সহায়তা করে। পাশাপাশি এর মধ্যে থাকা অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল বৈশিষ্ট্য আমাদের ত্বককে সুরক্ষিত করতে সহায়তা করে এবং বিভিন্ন সংক্রমণের হাত থেকেও রক্ষা করে। সরিষার তেল ব্যবহারে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস পায়, তাই যাদের হৃদরোগের সমস্যা আছে তারাও এই তেলে তৈরি খাবার খেতে পারেন। 

চিনাবাদাম তেল 
চিনাবাদাম তেলে মনোআনস্যাচুরেটেড এবং পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাট অত্যন্ত বেশি। যা অস্বাস্থ্যকর কোলেস্টেরল হ্রাস করতে সহায়তা করে। পাশাপাশি এটি ভিটামিন ই এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যে সমৃদ্ধ। যা আপনার ত্বকের জন্যও একটি দুর্দান্ত বিকল্প।

নারকেল তেল 
নারকেল তেল খুব বেশি রান্নায় ব্যবহার করা হয় না। তবে এটি কিন্তু খুবই স্বাস্থ্যকর। অন্যদিকে ত্বক এবং চুলের জন্য তো সেরা দাওয়াই। এই তেলে উচ্চ স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকে। যা আমাদের দেহে ভালো কোলেস্টেরল বাড়ায়। পাশাপাশি এতে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এটি ভিটামিন ই এবং পলিফেনল সমৃদ্ধ। যা শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।   

অলিভ অয়েল 
অনেকেই রান্নায় অলিভ অয়েল ব্যবহার করেন। ভিটামিন ই এবং বিভিন্ন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যৌগ সমৃদ্ধ, অলিভ অয়েল আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী। কম পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকার কারণে এই তেল হৃদরোগের ঝুঁকি কমায় এবং জয়েন্ট পেন থেকেও স্বস্তি দেয়।

সানফ্লাওয়ার অয়েল 
প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং পুষ্টিতে ভরপুর, সানফ্লাওয়ার অয়েলে পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাট রয়েছে। যা দেহে কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করতে সহায়তা করে। এছাড়াও, এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং কার্ডিওভাসকুলার রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে। এছাড়াও রাইস ব্র্যান অয়েলও কিন্তু শরীরের জন্য খুবই উপকারী।